বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‌নিজের ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার যুবকের দেহ
ঘটনার চিত্র
ঘটনার চিত্র

‌নিজের ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার যুবকের দেহ

  • মৃত ওই যুবকের নাম লমধর মুর্মু (‌২৪)‌। মধুপুরের বাসিন্দা ওই যুবক ক্ষেত মজুরের কাজ করতেন।

নিজের ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার হল এক যুবকের মৃতদেহ। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জের মধুপুর গ্রামে। গোটা ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত ওই যুবকের নাম লমধর মুর্মু (‌২৪)‌। মধুপুরের বাসিন্দা ওই যুবক ক্ষেত মজুরের কাজ করতেন। পরিবার সূত্রে খবর, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাতেও খাওয়াদাওয়া করে নিজের ঘরে শুতে চলে যায় লমধর। এরপর এদিন অনেক ডাকাডাকির পরও যখন কোনও সাড়াশব্দ পাননি লমধরের মা চুমকি মুর্মু, তখন তিনি দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতেই দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় ছেলে পড়ে রয়েছে। এরপর চুমকি দেবী চিৎকার চেঁচামেচি করতেই আশেপাশের মানুষ জড়ো হয়ে যায়। এলাকার বাসিন্দারাই পুলিশকে খবর দেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

পরিবারের তরফে পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে, লমধরকে খুন করা হয়েছে। সে কোনও আত্মহত্যা করেনি। যারা লমধরকে খুন করেছে, তাঁদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হয়। পুলিশ অবশ্য এখনই এই বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারছে না। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই এই বিষয়ে পরিষ্কার হওয়া যাবে বলে পুলিশের অনুমান। স্থানীয় বাসিন্দাদের মতে, যুবকের মৃত্যু স্বাভাবিক নয়। তাঁর গায়ে রক্তের দাগ পাওয়া গেছে। স্বাভাবিক যদি মৃত্যু হত তাহলে রক্তের ছাপ দেখা যেত না। আমরা চাই, সত্যি ঘটনা কী সেটা বেরিয়ে আসুক।

 

বন্ধ করুন