বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে পুলিশ', তির-ধনুক হাতে জাতীয় সড়ক অবরোধ আদিবাসীদের
'মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে পুলিশ', তির-ধনুক হাতে জাতীয় সড়ক অবরোধ আদিবাসীদের। (ছবিটি প্রতীকী)
'মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে পুলিশ', তির-ধনুক হাতে জাতীয় সড়ক অবরোধ আদিবাসীদের। (ছবিটি প্রতীকী)

'মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে পুলিশ', তির-ধনুক হাতে জাতীয় সড়ক অবরোধ আদিবাসীদের

মালদহের জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, কেউ আইন এইভাবে নিজের হাতে তুলে নিতে পারে না।

লাঠি, দাঁ, তির, ধনুক নিয়ে তিন ঘণ্টা ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে রাখলেন আদিবাসীরা। তাঁদের অভিযোগ, পুলিশ তাঁদেরকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে। অবরোধ তুলতে গিয়ে রীতিমতো বাধার মুখে পড়তে হয় পুলিশকে। তবে শেষপর্যন্ত অবরোধ তুলতে সক্ষম হয় পুলিশ।

রবিবার সকাল থেকে মালদহে গাজোলের আলমপুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে রাখেন আদিবাসীরা। মাইকিং করে পুলিশ বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে থাকেন আদিবাসীরা। পুরুষ ও মহিলা একযোগেই রাস্তা অবরোধ করেন। বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে রাস্তাতেই বসে পড়েন আদিবাসী মহিলারা। রাস্তা অবরোধের ফলে এলাকায় ব্যাপক যানজট হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় গাজোল থানার পুলিশ। পুলিশের সামনেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন আদিবাসীরা। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় বিক্ষোভ। টানা তিন ঘণ্টা চলে। বিক্ষোভ তুলতে গিয়ে বাধার মুখে পড়তে হয় গাজোল থানার পুলিশ। শেষপর্যন্ত ইংরেজবাজার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

জানা গিয়েছে, ২০১৬ সালের পুরনো একটি মামলায় পুলিশের কাছে হাজিরা না দেওয়ার জন্য ছোরটু সোরনে নামে এক আদিবাসীকে ধরে পুলিশ। শনিবার এই ঘটনা ঘটার পর রবিবার রাস্তা অবরোধ করে আদিবাসীরা। তাঁদের দাবি, পুলিশ তাঁকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। তাঁকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হয়েছে। এই প্রসঙ্গে মালদহের জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, কেউ আইন এইভাবে নিজের হাতে তুলে নিতে পারেন না। কোনও ব্যক্তির বিরুদ্ধে যদি ওয়ারেন্ট থাকে, তাহলে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করবেই। তাই বলে রাস্তা অবরোধ করা ঠিক নয়। পুলিশ এর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেবে।

বন্ধ করুন