বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দীঘার সৈকতে ঘোড়া চলাচলে নিষেধাজ্ঞা,'জীবিকার ব্যবস্থা করে দিন' দাবি ব্যবসায়ীদের
দীঘার সমুদ্র ( ফাইল ছবি) (PTI)
দীঘার সমুদ্র ( ফাইল ছবি) (PTI)

দীঘার সৈকতে ঘোড়া চলাচলে নিষেধাজ্ঞা,'জীবিকার ব্যবস্থা করে দিন' দাবি ব্যবসায়ীদের

  • এর আগেও দীঘার সমুদ্রতটে বেশ কয়েকবার ঘোড়া চলাচল বন্ধ করেছিল প্রশাসন। তবে পরবর্তী সময়ে চাপের মুখে সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

দীঘার সৈকতে ঘোড়া চলাচলের ফলে পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে। ঘোড়ার ক্ষতিকারক বিষ্ঠা সমুদ্রের জলে গিয়ে মিশেছে। যার ফলে দূষিত হচ্ছে সমুদ্রের জল। আর সেই জলে নেমে স্নান করছেন পর্যটকরা। শুধু তাই নয়, ঘোড়া চলাচলের ফলে অনেক দুর্ঘটনাও ঘটছে। এই পরিস্থিতিতে আবারও দীঘার সমুদ্রতটে ঘোড়া চলাচল বন্ধ করল দীঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন সংস্থা। আর এই নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পরে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন ঘোড়া ব্যবসায়ীরা। তাদের বক্তব্য, ঘোড়া চলাচলের ব্যবসাতেই তাদের সংসার চলে। এই অবস্থায় সমুদ্রতটে ঘোড়া চলাচলে নিষেধাজ্ঞা করা হলে তারা আর্থিক সমস্যায় পড়বেন।

দীঘা শঙ্করপুর উন্নয়নের মুখ্য আধিকারিক মানসকুমার মন্ডল জানিয়েছেন, 'ঘোড়া চলাচলের ফলে সমুদ্রে আসা পর্যটকরা সমস্যায় পড়েন। এরকম বহু অভিযোগ আমরা পেয়েছি সেই কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।' প্রসঙ্গত এর আগেও দীঘার সমুদ্রতটে বেশ কয়েকবার ঘোড়া চলাচল বন্ধ করেছিল প্রশাসন। তবে পরবর্তী সময়ে চাপের মুখে সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

এই অবস্থা নতুন করে ফের ঘোড়া চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করায় জীবিকা নির্বাহ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

উল্লেখ্য, প্রায় শতাধিক ঘোড়া ব্যবসায়ী দীঘা সমুদ্র তটে ঘোড়সওয়ারের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেন। তাদের বক্তব্য, 'এভাবে আচমকাই দীঘায় ঘোড়া চলাচল বন্ধ করে দিলে আমরা অনাহারে মারা যাব। এর জন্য জীবিকা নির্বাহের বিকল্প কোনও ব্যবস্থা করতে হবে।' এই দাবিতে শতাধিক ঘোড়া ব্যবসায়ী নিউ দীঘায় একত্রিত হয়ে এই নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করেন। তবে আপাতত তাদের দাবি মানতে নারাজ কর্তৃপক্ষ। মাইকিং করে এনিয়ে প্রচার চালানো হবে বলে উন্নয়ন সংস্থা সূত্রে জানা গেছে।

 

বন্ধ করুন