বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জামাই–শাশুড়ি ধরা পড়ল আপত্তিকর অবস্থায়, তারপর হাড়হিম ঘটনা মুর্শিদাবাদে
শাশুড়ির মৃত্যু হয়েছে।

জামাই–শাশুড়ি ধরা পড়ল আপত্তিকর অবস্থায়, তারপর হাড়হিম ঘটনা মুর্শিদাবাদে

  • এই ঘটনা মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া থানার সর্বাঙ্গপুর এলাকায়। নিহত শাশুড়ির নাম নুরসেফা বিবি। আর জামাইয়ের নাম রফিজুল মণ্ডল। শাশুড়ি–জামাইয়ের অবৈধ সম্পর্ক ছিল বলে জানা যাচ্ছে। সেটাই গ্রামবাসীরা দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর করেছে। শাশুড়ি মারা গিয়েছে। তার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

শাশুড়ি–জামাইয়ের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। এই নিয়ে এলাকায় চর্চা ছিলই। এবার বমাল ধরা পড়ে গেল সেই ঘটনা। গতকাল রাতে দু’জনকে একই ঘরে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায় বলে অভিযোগ। তারপরই গ্রামবাসীদের একাংশ ঘরে ঢুকে দু’জনকে মারধর শুরু করে। আর বেদম প্রহারে শাশুড়ির মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। আশঙ্কাজনক অবস্থায় জামাই ভর্তি হাসপাতালে।

ঠিক কী ঘটেছে মুর্শিদাবাদে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, কম বয়সে মেয়ের বিয়ে দিয়ে জামাইয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন শাশুড়ি। মেয়ে বিষয়টি জানে না। তবে জামাই প্রায়ই শাশুড়ির কাছে এসে সময় কাটাতো। এই নিয়ে গ্রামবাসীদের মনে সন্দেহ তৈরি হয়। সেটাই এবার প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে। যার জেরে মারধর করা হয় দু’‌জনকে। তাতে শাশুড়ির মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ কী তথ্য পেয়েছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনা মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া থানার সর্বাঙ্গপুর এলাকায়। নিহত শাশুড়ির নাম নুরসেফা বিবি। আর জামাইয়ের নাম রফিজুল মণ্ডল। শাশুড়ি–জামাইয়ের অবৈধ সম্পর্ক ছিল বলে জানা যাচ্ছে। সেটাই গ্রামবাসীরা দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর করেছে। শাশুড়ি মারা গিয়েছে। তার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

ঠিক কী বলেছেন জামাই?‌ এই ঘটনা নিয়ে জামাই রফিজুলের দাবি, তাঁর শ্বশুর এবং শ্যালকেরা ভুল ভেবে প্রচণ্ড মারধর করেছে। এমন কোনও সম্পর্কই ছিল না। এখন রফিজুলের স্ত্রীও বিষয়টি জানতে পেরেছে। তবে তিনি কোনও মন্তব্য করেননি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। খুনের সঙ্গে জড়িতদের খোঁজ করছে পুলিশ।

বন্ধ করুন