ঘটনাস্থলে পুলিশ
ঘটনাস্থলে পুলিশ

সাত ঘণ্টা পর, অবশেষে ছাদ থেকে নামল ঝাড়গ্রামের গুলি চালানো পুলিশ

পরিবারের আর্জিতে অবশেষে রাজি হন বিনোদ কুমার।

ছুটি পাচ্ছিলেন না বলে মানসিক চাপ। সেটা থেকেই আচমকা স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে গুলি চালাতে শুরু করলেন ঝাড়গ্রামের এক পুলিশ কনস্টেবল। নিমেষেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। তখন জেলা পুলিশ সুপারের বাড়ির ছাদে ডিউটিতে ছিলেন এই কনস্টেবল। অবশেষে প্রায় সাত ঘণ্টা পরে ছাদ থেকে নামেন সেই পুলিশ কর্মী। কোনও হতাহতের খবর নেই।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পুলিশ সুপারের ছাদে নজরদারির ডিউটিতে ছিলেন বিনোদ কুমার। বাড়িটি একটি কমপ্লেক্সের ভেতরে যেখানে এসপি, অতিরিক্তি এসপি ও জেলার অস্ত্রাগার অবস্থিত। সেখানেই আচমকা দেড়টা নাগাদ গুলি চালাতে শুরু করেন বিনোদ। পুরো এলাকাটা ঘিরে দেয় পুলিশ। লকডাউনের জেরে এমনিতেই রাস্তা ঘাট ফাঁকা ছিল।

ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বরিষ্ঠ পুলিশকর্তারা। এসপি অমিত রাঠোর সহ অফিসাররা তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। বলেন যে তাঁর মনে কোনও ক্ষোভ থাকলে সেই বিষয়ে আলোচনা করা যেতে পারে। তাঁর বাড়ির লোকদেরও গ্রাম থেকে নিয়ে আসা হয়। তাদের কাতর আবেদনে সাড়া দিয়ে অবশেষে রাত নটার সময় বাড়ির ছাদ থেকে নেমে পড়েন বিনোদ। রাইফেলটি ছাদেই রেখে দেন। অবসান হয় প্রায় সাত ঘণ্টার নাটকের।


বন্ধ করুন