বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'যখন ওঁর মা-বাবা মারা যান...', রূপাকে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ অনুব্রতর
অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি
অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি

'যখন ওঁর মা-বাবা মারা যান...', রূপাকে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ অনুব্রতর

  • সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে করা বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতে বিজেপি নেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়কে কুরুচিকর ভাষায় তোপ দাগলেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা প্রধান অনুব্রত মণ্ডল।

রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণের পর বিজেপি নেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন যে বর্ষীয়ান এই তৃণমূল নেতার বিজেপিতে যোগদান করার কথা ছিল। আর রূপার এহেন বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কুরুচিকর ভাষায় তোপ দাগলেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা প্রধান অনুব্রত মণ্ডল।

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্য প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে অনুব্রত রবিবার সাংবাদিকদের বলেন, 'আমি জানি না রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের মা, বাবা বেঁচে আছেন কি না। সুব্রত মুখোপাধ্যায় তাঁর বাবার মতো। মানুষ খারাপ হলেও, মারা গেলে তাঁকে খারাপ বলা হয় না। আমার মনে হয়, তাঁর (রূপা গঙ্গোপাধ্যায়) অভ্যাস হয়ে গিয়েছে বিষয়টা। তাঁর মা-বাবা যখন মারা যান, তখন নিজের মা-বাবাকে নিয়েও খারাপ কথা বলেছিল। সেই ভাষাটাই এখনও তাঁর ঠোঁটে লেগে রয়েছে। মুখস্থ হয়ে গিয়েছে সেই ভাষা।'

উল্লেখ্য, এর আগে সুব্রতবাবুর মৃত্যুর পর রূপা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, '২০২১ সালের নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগদান করার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু ডিল পছন্দ হয়নি ওঁর। এসব কথা আমি বলি না। নীরবই থাকি।' পাশাপাশি রূপা আরও লিখেছেন, '‌পুজো জাঁকজমক করা আর টাকা তোলা ছাড়া যার কোনও কন্ট্রিবিউশন ছিল না। তার জন্য আমার কোনও সম্মান নেই। সরি বস।' তাছাড়া বিজেপি কাউন্সিলর তিস্তা বিশ্বাসের মৃত্যুর সঙ্গে যোগসূত্র টেনে রূপা লেখেন, 'সবাই যেন হঠাৎ বালিগঞ্জে একা হয়ে গেল। সরি বস! তিস্তাকে নিয়েছ বস্। কিছু তো ফেরত নেবে মা কালী।' রূপার এই ধারাবাহিক বিতর্কিত পোস্টের জবাবে এবার মুখ খুলে নতুন বিতর্কের জন্ম দিলেন অনুব্রত।

বন্ধ করুন