বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মকর সংক্রান্তির দিনও মিলল দক্ষিণরায়ের পায়ের ছাপ, তীব্র আতঙ্ক পাথরপ্রতিমায়
লোকালয়ে ঢুকে পড়ছে বাঘ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

মকর সংক্রান্তির দিনও মিলল দক্ষিণরায়ের পায়ের ছাপ, তীব্র আতঙ্ক পাথরপ্রতিমায়

  • আর তাতেই গ্রামবাংলায় সংক্রান্তির দিন গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

মকর সংক্রান্তির দিনও বাঘের আতঙ্ক দেখা গেল দক্ষিণ ২৪ পরগণার পাথরপ্রতিমা ব্লকে। সদ্য আতঙ্ক থেকে মুক্তি পেয়েছেন কুলতলি, গোসাবা, সুন্দরবন এবং হলদিবাড়ির বাসিন্দারা। কিন্তু আজ, শুক্রবার পাথরপ্রতিমা ব্লকে দেখা মিলল দক্ষিণরায়ের পায়ের ছাপ। আর তাতেই গ্রামবাংলায় সংক্রান্তির দিন গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, আজ পাথরপ্রতিমা ব্লকে মৎস্যজীবীরাই প্রথমে বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পান। তখনই গোটা গ্রামে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পায়ের ছাপ তাজা হওয়ায় বোঝা যায় আশেপাশেই সে গা–ঢাকা দিয়েছে। গ্রামের অন্যান্যদের খবর দিলে সেখানে ভিড় জমে যায়। তাই বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে উৎসূক গ্রামবাসীরা সেখানে ভিড় করেন। ইতিমধ্যে বন দফতরে খবর দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

উল্লেখ্য, এবার সবচেয়ে বেশি বাঘকে লোকালয়ে চলে আসতে দেখা গিয়েছে। বিশেষ করে এই সুন্দরবন অঞ্চলে। গত নভেম্বরে পাথরপ্রতিমার হেরম্ব গোপালপুর অঞ্চলে বাঘের পায়ের ছাপ মিলেছিল। তারপর গোসাবা, কুলতলিতে দেখা দেয় দক্ষিণরায়। গত বুধবারই গোসাবার মথুরাখণ্ড গ্রামে আতঙ্ক ছড়ায় রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার।

তবে বন দফতর থেকে কর্মীরা এসে পৌঁছেছে। তাঁরা বাঘ ধরার প্রস্তুতি শুরু করেছেন। যদিও এখনও দেখা মেলেনি দক্ষিণরায়ের। তাই এখনও সেখানে আতঙ্ক বিরাজমান। গত একমাসে গোসাবায় ৩টি এবং কুলতলির লোকালয়ে একটি বাঘ ঢুকেছিল। এবার নতুন এলাকা যুক্ত হল পাথরপ্রতিমা। কোথায় গেল দক্ষিণরায়?‌ খুঁজছে বন দফতরের কর্মীরা।

বন্ধ করুন