বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হলদিবাড়িতে বাঘের আতঙ্ক, হাজির বন দফতরের কর্মীরা, গৃহবন্দি বাসিন্দারা
লোকালয়ে ঢুকে পড়ল বাঘ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
লোকালয়ে ঢুকে পড়ল বাঘ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

হলদিবাড়িতে বাঘের আতঙ্ক, হাজির বন দফতরের কর্মীরা, গৃহবন্দি বাসিন্দারা

  • তারপর থেকেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। তখন বাঘের হদিশ পেতে সেখানে বসানো হয় ট্র্যাপ ক্যামেরা।

সুন্দরবন–কুলতলিতে বাঘের আতঙ্ক মিটতেই এবার একই আতঙ্ক দেখা দিল হলদিবাড়িতে। এখানের বেলতলী এলাকার তিস্তা নদীর চর এলাকায় বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছে। শীতের মধ্যে এই আতঙ্কে এখন কাঁটা হয়ে রয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। শনিবার রাতে বাঘের গর্জন শোনা যায়। তারপর থেকেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। তখন বাঘের হদিশ পেতে সেখানে বসানো হয় ট্র্যাপ ক্যামেরা। এলাকায় হাজির হয়েছেন বন দফতরের কর্মীরা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এদিন প্রথমে একটি কুকুরের আর্তনাদ শোনা যায়। তখন এলাকাবাসী রাতে বেরিয়ে কিছু দেখতে না পেলেও বুঝতে পারেন কুকুরকে কেউ তাড়া করেছে। তারপরই শোনা যায় দক্ষিণরায়ের গর্জন। তাতেই আতঙ্ক তৈরি হয়। পরে লোকজন ছুটে আসে এবং বেশ কয়েকটি জায়গায় মাটিতে বড় বড় আঁচড়ের দাগ ও পায়ের ছাপ দেখতে পায়। তখনই খবর দেওয়া হয় বন দফতরে।

উল্লেখ্য, গত রবিবারও এখানের বাসিন্দারা একটি পূর্ণবয়স্ক বাঘ দেখতে পান। কিন্তু সে তখনও লোকালয়ে আসেনি। বেলতলী তিস্তা নদীর চড়ে আলু ক্ষেত থেকে একটি পূর্ণবয়স্ক বাঘ দেখতে পান বলে দাবি করেন ওই এলাকায় বাসিন্দারা। তখনও খবর দেওয়া হয়েছিল বন দফতরে। এবার তা সরাসরি লোকালয়ে প্রবেশ করেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন এলাকাবাসী। বারবার বন দফতরের কর্মীদের কাছে খবর নিচ্ছেন বাঘ ধরা পড়ল কিনা। কিন্তু এখনও সে অধরা। বাঘের খবর পেয়েই বন দফতরের হলদিবাড়ির বিট অফিসার ভূষণ বর্মন–সহ বন দফতরের কর্মীরা সেখানে গিয়ে পৌঁছন। সেখানে ক্যামেরা–সহ ফাঁদ পাতা হয়েছে। এখানে বন দফতরের কর্মীরা একাধিক পায়ের ছাপ পেয়েছেন।

বন্ধ করুন