বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পঞ্চায়েত প্রধানকে লক্ষ্য করে বোমা, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত জলঙ্গী
তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত জলঙ্গি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত জলঙ্গি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

পঞ্চায়েত প্রধানকে লক্ষ্য করে বোমা, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত জলঙ্গী

  • ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

মুর্শিদাবাদে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব অব্যাহত। সম্প্রতি, মুর্শিদাবাদের বহু এলাকায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। এবার গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত হয়ে উঠল মুর্শিদাবাদের জলঙ্গি থানার খয়রামারি পঞ্চায়েত এলাকা। চলল বোমাবাজি। যদিও এই ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনায় তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতির বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল উঠেছে।

পঞ্চায়েতের প্রধান হাসিনা বানু এই অভিযোগ তুলেছেন অঞ্চল সভাপতি নাসিরুদ্দিন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে। তাঁর অভিযোগ, গতকাল সোমবার গভীর রাতে তাকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়েছিল। এই ঘটনার পরেই তিনি জলঙ্গি থানার ওসিকে মৌখিক ভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রের খবর, পঞ্চায়েত প্রধানের সঙ্গে অঞ্চল সভাপতির বিবাদ দীর্ঘদিনের। পঞ্চায়েত প্রধানের অভিযোগ, নাসিরুদ্দিন বিভিন্ন ধরনের অনৈতিক কাজ করতে চাইতেন। তিনি তাকে বাধা দেওয়ার কারণেই খুন করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। জানা যাচ্ছে, কিছুদিন আগে মা হয়েছেন পঞ্চায়েত প্রধান। ঘটনার সময় তিনি বাবার বাড়িতেই ছিলেন। পঞ্চায়েত প্রধানের অভিযোগ তার বাবার বাড়িতে থাকার কথা জানতে পেরেই সেখানে বোমা বাজি করিয়েছে নাসিরুদ্দিন।

অন্যদিকে, অঞ্চল সভাপতি নাসিরুদ্দিন এই অভিযোগের কথা পুরোপুরি ভাবে অস্বীকার করেছেন। উল্টে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন পঞ্চায়েত প্রধানের ভাইয়ের বিরুদ্ধে। তাঁর পাল্টা অভিযোগ, পঞ্চায়েত প্রধানের সমস্ত দুর্নীতির কাজ করে থাকেন তার ভাই। সেই কাজে তিনি বহুবার বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। জব কার্ড দেওয়ার নামে দুর্নীতি করা হয়েছে বলেও তিনি পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন। তবে বোমাবাজির ঘটনা সম্পর্কে তার কিছুই জানা নেই বলেই দাবি করেছেন অঞ্চল সভাপতি।

জানা যাচ্ছে, এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে অভিযোগ দায়ের হলে তার ভিত্তিতে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বন্ধ করুন