বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Alipurduar: মায়ের ভ্যাকসিন দেওয়া হল ১০ মাসের শিশুকে, কার ভুলে বিপত্তি?
মায়ের ভ্যাকসিন শিশুকে দেওয়ার অভিযোগ। প্রতীকী ছবি( REUTERS/Sumaya Hisham/File Photo) (REUTERS)

Alipurduar: মায়ের ভ্যাকসিন দেওয়া হল ১০ মাসের শিশুকে, কার ভুলে বিপত্তি?

  • হাসপাতাল সূত্রে খবর., আপাতত শিশুটির অবস্থা স্থিতিশীল। হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে পর্যবেক্ষণে রেখেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই কর্মীকে আপাতত বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য় ওপরমহলের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

ভয়াবহ ঘটনা আলিপুরদুয়ারে। মায়ের জন্য বরাদ্দ ভ্যাকসিন ভুল করে দিয়ে দেওয়া হল ১০ মাসের শিশুকে। কর্তব্যে গাফিলতির চরমতম অভিযোগ। সূত্রের খবর, শিশু অয়ন দাসকে সঙ্গে নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন মা অপর্ণা দাস। তিনি আলিপুরদুয়ারের ভেলুরডাবরি এলাকার বাসিন্দা। জেলা হাসপাতালে ভ্যাকসিনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি। আসলে মাস খানেক আগের অপর্ণাকে বিড়ালে কামড়েছিল। এদিনই ছিল তার শেষ ডোজ।

সেই মতো তিনি হাসপাতালে এসেছিলেন। এদিকে ভ্যাকসিনের জন্য বরাদ্দ ঘরে যেতেই কোনও কিছু না জিজ্ঞেস করে অপর্ণার কোলে থাকা শিশুর হাতেই ভ্যাকসিন দিয়ে দেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। কিন্তু ওই এআরভি ইঞ্জেকশন তো মাকে দেওয়ার কথা ছিল। এদিকে ভ্যাকসিন পাওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়ে শিশুটি।

এদিকে ঘটনার কথা জানাজানি হতেই এলাকায় তুমুল ক্ষোভ ছড়ায়। অপর্ণার স্বামী সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা হাসপাতালে ছুটে আসেন। তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তারা। এরপর হাসপাতালের সুপার দ্রুত ওই স্বাস্থ্যকর্মীকে ইউনিট থেকে সরিয়ে দেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে এত কেন গাফিলতি?

কিন্তু কেমন আছে শিশুটি? হাসপাতাল সূত্রে খবর., আপাতত শিশুটির অবস্থা স্থিতিশীল। হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে পর্যবেক্ষণে রেখেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই কর্মীকে আপাতত বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য় ওপরমহলের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

এদিকে শিশুর পরিজনদের দাবি কিছু না শুনেই আচমকা ভ্যাকসিন দেওয়া হল। শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তার দায় কে নেবে?

 

বন্ধ করুন