বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > East Bardhaman: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে খুন, কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা

East Bardhaman: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে খুন, কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা

মঙ্গলকোটে উদ্ধার তৃণমূল নেতার স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ। (প্রতীকী ছবি)

প্রতিবেশীরা তার বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে দেখতে পান বাড়ি ফাঁকা রয়েছে। ঘরের ভিতরে ঢুকতেই দেখেন সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে ঝুমার দেহ। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, ঝুমাকে খুন করে তার তৃণমূল নেতা স্বামী এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছে।

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ উঠল। এই ঘটনায় কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা স্বামী। মৃতের নাম ঝুমা মণ্ডল (২৮)। অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার নাম অসীম মণ্ডল। ঘটনাটি পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোটের বনকাপাসি গ্রামের। মৃতার পরিবারের সদস্যরা তৃণমূল নেতা তথা ওই গৃহবধুর স্বামীর গ্রেফতারির দাবিতে সরব হয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার। গৃহবধূকে বাড়ির বাইরে দেখতে না পেয়ে প্রতিবেশীরা তার বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে দেখতে পান বাড়ি ফাঁকা রয়েছে। ঘরের ভিতরে ঢুকতেই দেখেন সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে ঝুমার দেহ। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, ঝুমাকে খুন করে তার তৃণমূল নেতা স্বামী এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছে। এদিকে, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করে তার দেহ পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেয়। কিন্তু, গৃহবধুর বাপের বাড়ি সদস্যরা বুধবার রাতে তার শ্বশুরবাড়িতে দেহ রেখে জামাইয়ের গ্রেফতারের দাবি জানায়। গ্রামবাসীরাও তার গ্রেফতারের দাবি জানান। এদিকে গৃহবধুর দেহ সৎকার করা নিয়ে আপত্তি জানায় তার পরিবার। তাদের দাবি, অভিযুক্ত গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত তারা দেহ সৎকার করবে না। আবার পুলিশ এসে দেহ থানায় নিয়ে চলে যায়।

গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, অসীমের সঙ্গে ঝুমার বিয়ে হয়েছে ১০ বছর আগে। কিন্তু সম্প্রতি অসীম অন্য এক মহিলার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তাই নিয়ে ঝুমার সঙ্গে তার মাঝেমধ্যে অশান্তি হত। প্রতিবেশীরাও অসীমের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগের কথা স্বীকার করেছেন। যদিও স্থানীয় কোনও তৃণমূল নেতা কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। তবে পলাতক তৃণমূল নেতাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

বন্ধ করুন