বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Howrah fish market: আদালতের নির্দেশ অমান্য করে হাওড়া মাছ বাজারে ব্যবহার হচ্ছে থার্মকলের বাক্স, বিতর্ক

Howrah fish market: আদালতের নির্দেশ অমান্য করে হাওড়া মাছ বাজারে ব্যবহার হচ্ছে থার্মকলের বাক্স, বিতর্ক

থর্মকলের বাক্সে মাছ বিক্রি হচ্ছে। প্রতীকী ছবি

কলকাতার পাতিপুকুর মাছবাজারে থার্মোকলের বাক্স ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল জাতীয় পরিবেশ আদালত। এ বিষয়ে রাজ্য সরকারকে পদক্ষেপ করতে বলেছিল। তারপরেই হাওড়া মাছবাজারে একইভাবে থার্মোকলের বাক্স ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে জাতীয় পরিবেশ আদালত।

দূষণ রুখতে সম্প্রতি জাতীয় পরিবেশ আদালত নির্দেশ দিয়েছে থার্মোকলের বাক্সে মাছ রাখা যাবে না। কিন্তু, তা সত্ত্বেও হাওড়া মাছবাজারে থার্মোকলের বাক্স ব্যাবহার করা হচ্ছে। সেখানকার ব্যবসায়ীদের দাবি, অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে থার্মোকলের বাক্সতেই সেখানে মাছ আসছে। আবার অন্ধ্রপ্রদেশের মাছ ব্যবসায়ীদের একাংশের দাবি, থার্মোকলের বাক্সে মাছ পাঠানো হয় না, ট্রেতে করে এখানে মাছ পাঠানো হয়। এই পরিস্থিতিতে নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কলকাতার পাতিপুকুর মাছবাজারে থার্মোকলের বাক্স ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল জাতীয় পরিবেশ আদালত। এ বিষয়ে রাজ্য সরকারকে পদক্ষেপ করতে বলেছিল। তারপরেই হাওড়া মাছবাজারে একইভাবে থার্মোকলের বাক্স ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে জাতীয় পরিবেশ আদালত। যদিও পরিবেশ কর্মীদের দাবি, শুধু হাওড়া বা পাতিপুকুর মাছবাজারে নয়, সমস্ত মাছ বাজারে থার্মোকলের বাক্স নিষিদ্ধ করতে হবে। হাওড়া মাছবাজারে থার্মোকলের বাক্স নিষিদ্ধ করা নিয়ে জাতীয় পরিবেশ আদালতে একটি মামলা দায়ের হয়েছিল। সেই মামলার শুনানি হয় ২০২১ সালের অগস্টে। পরে ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে মামলাটির নিষ্পত্তি হয়। আদালতের নির্দেশ ছিল, হাওড়া মাছবাজার প্লাস্টিক এবং আবর্জনামুক্ত করার জন্য পদক্ষেপ করতে হবে। কিন্তু, সেই মতো কাজ হয়েছে কিনা সে বিষয়ে আদলতে কোনও কমপ্লায়েন্স রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা শুরু করে আদালত। তখনই থার্মোকলের বাক্স ব্যবহার করার বিষয়টি মামলায় উঠে আসে। অভিযোগ, ভাঙা থার্মকল পড়ে তরল বর্জ্য জমা হচ্ছে। ফলে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে বলে মামলায় বিষয়টি উঠে আসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে মাছবাজারে থার্মোকলের বাক্স ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে জাতীয় পরিবেশ আদালত।

যদিও হাওড়া মাছ বাজার সমিতির পক্ষ থেকে আদালতে জানানো হয়, থার্মোকলের বাক্স নিষিদ্ধ করার পরেই অন্ধ্রপ্রদেশের মাছ ব্যবসায়ী সংগঠনকে চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে তারা। যাতে থার্মোকলের বাক্সে মাছ না পাঠায় সে বিষয়ে অন্ধ্রপ্রদেশের মাছ ব্যবসায়ীদের কাছে তারা আবেদন জানিয়েছেন। মাছবাজার সমিতির সম্পাদক আনোয়ার মকসুদ জানান, ‘আদালতের নির্দেশ মানার জন্য যা যা করার তা সব কিছু করা হয়েছে। জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশ মানতে আমরা বদ্ধপরিকর।’ যদিও অন্ধপ্রদেশের মাছ ব্যবসায়ী সংগঠনের দাবি, তারা থার্মোকলের বাক্সে নয়, ট্রেতে করে মাছ পাঠান।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর

Latest News

তিন-চার ওভারের পর… অক্ষরকে নিয়ে সূর্যের পরিকল্পনা ফাঁস হয়ে গেল ক্যামেরায়- ভিডিয়ো সিকিম পেল, দার্জিলিং বঞ্চিত কেন? ভোট মিটলেই ভুলে যায়! বাজেট বঞ্চনা নিয়ে সরব মমতা ২০২৫-র বাজেটেই উঠে যাবে পুরনো আয়কর কাঠামো? সব হবে নতুনে? মুখ খুললেন সীতারামন ‘এক হাতে তালি বাজে না, কাউকে অসম্মান করব না..’, সোহিনীর প্রশ্নের জবাব রণজয়ের 'আমি ওয়ার্ন করছি.. সিকিউরিটি ডাকুন', কেন বললেন SCর প্রধান বিচারপতি! কী ঘটেছে? IPL 2025-এ নয়া ভূমিকায় দেখা যাবে যুবরাজকে? GT-তে যোগ দিতে পারেন প্রাক্তন তারকা? কলকাতায় আপনাদের অফিস করুন, ওলা-উবারকে নির্দেশ পরিবহণমন্ত্রীর শেফালির ঝড়, দীপ্তিদের আগুন, ভারতের নেপাল বধ, লিগের ৩ ম্যাচ জিতে সেমিতে স্মৃতিরা মমতার কথায় বাংলাদেশে অস্বস্তিতে পড়ল ভারত, 'বিভ্রান্তি ছড়িয়েছেন', বার্তা ঢাকার ট্রাম্পের ওপর হামলার ঘটনার পর পদত্যাগ US ‘সিক্রেট সার্ভিস’-এর ডিরেক্টরের

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.