বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ইউটিউবে আইটেম গানে নাচের ভিডিয়ো, গরম রডের ছ্যাঁকা দেওয়া হল ২ তরুণীকে
রহড়া থানা।

ইউটিউবে আইটেম গানে নাচের ভিডিয়ো, গরম রডের ছ্যাঁকা দেওয়া হল ২ তরুণীকে

  • জানা গিয়েছে, দুই তরুণী সোদপুরের অমরাবতী এলাকার বাসিন্দা। ইউটিউব এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের যথেষ্ট জনপ্রিয়তা রয়েছে। বিভিন্ন গানের তালে নাচের ভিডিয়ো তারা ইউটিউব সহ অন্যান্য সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে আপলোড করে থাকে। 

ইউটিউবে নাচের ভিডিয়ো আপলোড করার জন্য ভয়াবহ শাস্তি দেওয়া হল দুই মহিলা শিল্পীকে। তাদের শুধু তাদের মারধরই করা হল না, তাদের গায়ে দেওয়া হল গরম লোহার রডের ছ্যাঁকা। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের দোপেরিয়া এলাকায়। তাদের প্রাণে মেরে ফেলে দেওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় রহড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন দুই তরুণী। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক স্বামীর, আদালতের সামনেই কলার ধরে পেটালেন স্ত্রী

জানা গিয়েছে, দুই তরুণী সোদপুরের অমরাবতী এলাকার বাসিন্দা। ইউটিউব এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের যথেষ্ট জনপ্রিয়তা রয়েছে। বিভিন্ন গানের তালে নাচের ভিডিয়ো তারা ইউটিউব সহ অন্যান্য সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে আপলোড করে থাকে। সম্প্রতি একটি হিন্দি আইটেম গানের নাচের ভিডিয়ো ইউটিউবে আপলোড করেছিলেন ওই দুই তরুণী। তাতেই ঘটে বিপত্তি। অভিযোগ, গত ১২ সেপ্টেম্বর তারা বান্ধবীর বাড়ি যাওয়ার পথে দোপেরিয়া মোড়ে আচমকা বাইকে করে কয়েকজন দুষ্কৃতী এসে তাদের পথ আটকায় এবং তাদের বেধড়ক মারধর করে। সেই সঙ্গে গরম লোহার রডের ছ্যাঁকা দেয়। ঘটনায় স্থানীয় কয়েকজন যুবক জড়িত রয়েছে বলে রহড়া থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন ওই দুই তরুণী।

তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। তবে তাদের গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত আতঙ্কে রয়েছেন ওই দুই তরুণী। আতঙ্কে তারা বাড়ি থেকেও বের হতে পারছেন না। এক আক্রান্ত তরুণীর কথায়, ‘কয়েকদিন আগেই ইউটিউবে একটি নাচের লাইভ স্ট্রিমিং করেছিলাম। তারপরেই আমাদের উপর হামলা করা হয়েছে।’ জানা গিয়েছে, দুই তরুনীর বয়ান রেকর্ড করবে পুলিশ। পুরো বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

বন্ধ করুন