প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

ট্যাংরাকাণ্ডে গ্রেফতার অ্যাম্বুল্যান্স চালক, বধূর বয়ানে অসঙ্গতির দাবি পুলিশের

প্রথমে চিহ্নিত করা হয় অ্যাম্বল্যান্সটিকে। এর পর আবদুর রহমানের খোঁজ পান তদন্তকারীরা। এই ঘটনায় সেই মূল অভিযুক্ত।

মঙ্গলবার রাতে ট্যাংরায় বৃদ্ধের মৃত্যুর ঘটনায় অ্যাম্বুল্যান্স চালককে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের নাম আবদুর রহমান বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে অপহরণকারী মহিলার বয়ানে অসঙ্গতি রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা।

মঙ্গলবার গভীর রাতের ওই ঘটনায় আসেপাশের দোকানের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্তে নামে পুলিশ। প্রথমে চিহ্নিত করা হয় অ্যাম্বল্যান্সটিকে। এর পর আবদুর রহমানের খোঁজ পান তদন্তকারীরা। এই ঘটনায় সেই মূল অভিযুক্ত। তবে অভিযুক্ত আরেক যুবক এখনো পলাতক।

গ্রেফতারি নিয়ে বেশি কিছু না জানালেও বধূর বয়ানে বেশ কিছু অসঙ্গতি রয়েছে বলে মনে করছেন গোয়েন্দারা। বধূ ওই যুবকদের আগে থেকে চিনতেন না বলে দাবি করলেও তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে আধিকারিকদের মনে।

গত রাতে ১১.৩০ মিনিট নাগাদ ট্যাংরার ক্রিস্টফার রোড দিয়ে নিমন্ত্রণ রক্ষা করছিলেন ২৮ বছর বয়সী ওই গৃহবধূ। ক্রিস্টফার রোডেই বাড়ি তাঁর। অভিযোগ, সেই সময় গোবিন্দ খটিক রোডের দিক থেকে একটি অ্যাম্বুল্যান্স এসে তাঁর পাশে দাঁড়ায়। তাঁকে টেনে গাড়িতে তোলার চেষ্টা। বধূর সঙ্গেই ফিরছিলেন তাঁর শ্বশুর। তিনি অ্যাম্বুল্যান্স চালককে বাধা দিতে গাড়ির সামনে দাঁড়ান। তখন বৃদ্ধের ওপর দিয়েই গাড়ি চালিয়ে দেয় অ্যাম্বুল্যান্স চালক। প্রায় ১০০ মিটার তাঁকে টেনে নিয়ে যায় গাড়ির চাকা। স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করা হয় গোপাল প্রামাণিক নামে ওই ব্যক্তিকে।


বন্ধ করুন