বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > টাকার বিনিময়ে প্রার্থীর নাম সুপারিশের অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে
তৃণমূল বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়
তৃণমূল বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়

টাকার বিনিময়ে প্রার্থীর নাম সুপারিশের অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে

বিধায়ক জানান, ‘‌কেউ যদি প্রমাণ করতে পারে, তাহলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব'।

এবার বিস্ফোরক অভিযোগ উঠল রাজারহাট–নিউটাউনের তৃণমূল বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নাকি টাকা নিয়ে প্রার্থীর নাম সুপারিশ করেছেন। তবে যাবতীয় অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক।

তৃণমূল বিধায়ক তাপস চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, দলের কারওর সঙ্গে আলোচনা না করেই তিনি তাঁর বিধানসভা এলাকায় অন্তর্গত রতন মৃধা, বিনু মণ্ডল, তাপস রায়-সহ একাধিক নেতার নাম দলের শীর্ষ নেতার কাছে সুপারিশ করেছেন। শুধু তাই নয়, যাদের কথা তৃণমূল বিধায়ক সুপারিশ করেছেন, তাঁরা সকলেই দুর্নীতিতে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে। টাকার বিনিময়ে তাপসবাবু এই সুপারিশ করেছেন বলেই অভিযোগ। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। লিখিত অভিযোগে তৃণমূলের একাংশের তরফে দলীয় নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে, তাপসবাবু নিজের মেয়েকেও টিকিট দিতে চাইছেন। নিজের মেয়েকে টিকিট দিতে চাইছেন বলেই এলাকার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলারকে সরাতে চাইছেন। এছাড়াও অনেক পুরনো তৃণমূল কর্মীকেও বাদ দিতে চাইছেন।

এদিকে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাপস চট্টোপাধ্যায়। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌কেউ যদি প্রমাণ করতে পারে, তাহলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব। আমার ওসব প্রয়োজন হয় না। নিউটাউনের মানুষ সব জানেন। সংবাদমাধ্যমের কাছে এসব বলে বেড়ানো মানেই হচ্ছে, উদ্দেশ্যপ্রনোদিতভাবে এই সব করানো হচ্ছে।’‌ উল্লেখ্য, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে বিধাননগর-সহ ৪টি পুরনিগম এলাকায় ভোটের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ২২ জানুযারি ভোট গ্রহণ। কাল থেকেই নির্বাচনী আচরণবিধি চালু হয়ে যাবে ওই সব এলাকায়।

বন্ধ করুন