বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > North Bengal: ‘উত্তরবঙ্গ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হবে’, অমিত শাহ বলেছেন বলে দাবি অনন্ত মহারাজের
গ্রেটারের অনন্ত মহারাজ (ফাইল ছবি)

North Bengal: ‘উত্তরবঙ্গ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হবে’, অমিত শাহ বলেছেন বলে দাবি অনন্ত মহারাজের

  • অনন্ত মহারাজের দাবির বিরুদ্ধে নিশীথ প্রামাণিককে কিছু বলতে শোনা যায়নি। একাধিক সময়ে তাঁকে বাংলা ভাগের কথা বলতে শোনা গিয়েছে। ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার ৮৮তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষ্যে শুক্রবার রাজগঞ্জ ব্লকের বিন্নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের পাঘালু পাড়া ময়দানে একটি সমাবেশ হয়েছিল। ওই সমাবেশেই দাবি করেছেন অনন্ত মহারাজ।

বিজেপির সংগঠন যেটুকু আছে সেটা উত্তরবঙ্গে। আর তা নিয়েই তাঁরা নানা সময়ে বাঁটোয়ারার কথা বলে থাকেন। একুশের নির্বাচনে পরাজয়ের পর থেকেই উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার কথা শোনা যায় বিজেপি নেতাদের মুখে। জন বারলা থেকে দিলীপ ঘোষ এই নিয়ে আগে বহু কথা বলেছেন। তবে বারবারই প্রতিবাদে গর্জে উঠতে দেখা গিয়েছে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এবার বিস্ফোরক দাবি করলেন কোচবিহারের রাজা তথা গ্রেটার কোচবিহার সংগঠনের চেয়ারম্যান অনন্ত মহারাজ।

ঠিক কী বলেছেন অনন্ত মহারাজ?‌ একটি প্রকাশ্য সভায় অনন্ত মহারাজ বলেন, ‘‌কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আমার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। উনি আমাকে বলেছেন উত্তরবঙ্গকে আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করা হবে। এটা যে সে লোকের কথা নয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই কথা দিয়েছেন। আর ভারতবর্ষ সংবিধানের নিয়মে চলে। সুতরাং এই কথা হেলাফেলা করার নয়। আর উত্তরবঙ্গ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হলে আমার হাতে বৃহত্তর ক্ষমতা থাকবে।’‌

ঠিক কী বলছে তৃণমূল কংগ্রেস?‌ অনন্ত মহারাজের দাবি নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। তীব্র প্রতিক্রিয়া দেওয়া শুরু হয়েছে। এই বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তাপস রায় শনিবার বলেন, ‘‌কার সঙ্গে কার বৈঠক হয়েছে, তাতে কে কাকে কী আশ্বাস দিয়েছে জানি না। তা বলতে পারব না। তবে বিজেপি বাংলা ভাগ করার চেষ্টা করলে দুই বঙ্গের মানুষ ওদের ছুড়ে বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেবে। কারণ বিজেপি বাংলার মানুষের থেকে বিচ্ছিন্ন। ওদের কোনও গ্রহণযোগ্যতা নেই। তাই ষড়যন্ত্র করছে। বাংলা দখলের জন্য এইসব ষড়যন্ত্র করছে।’‌ আর লোকসভায় কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী বলেন, ‘‌অনন্ত মহারাজ কী বলেছেন জানি না। তবে বিজেপি আগুন নিয়ে খেলতে গেলে ওদেরই হাত পুড়বে। বাংলা একবার ভাগ হয়েছে। আর বাংলার উপর খবরদারি করতে গেলে রাজ্যের মানুষই উচিত শিক্ষা দেবে।’‌

উল্লেখ্য, অনন্ত মহারাজের এই দাবির বিরুদ্ধে নিশীথ প্রামাণিককে কিছু বলতে শোনা যায়নি। বরং একাধিক সময়ে তাঁকে এই বাংলা ভাগের কথা বলতে শোনা গিয়েছে। ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার ৮৮তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষ্যে শুক্রবার রাজগঞ্জ ব্লকের বিন্নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের পাঘালু পাড়া ময়দানে একটি সমাবেশ হয়েছিল। ওই সমাবেশেই এমন দাবি করেছেন অনন্ত মহারাজ। শুক্রবার উত্তরবঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও।

বন্ধ করুন