বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হিজাব পরে ডিউটিতে! চরম 'হেনস্থা' স্বাস্থ্যকর্মীর মুখের উপর দরজা বন্ধ করলেন নার্স
হিজাব বিতর্ক মিটছে না কিছুতেই. (PTI) (HT_PRINT)

হিজাব পরে ডিউটিতে! চরম 'হেনস্থা' স্বাস্থ্যকর্মীর মুখের উপর দরজা বন্ধ করলেন নার্স

  • সূত্রের খবর, প্রায় ১৫ বছর ধরে আনোয়ারা খাতুন নামে ওই এএনএম গ্রামের সাব সেন্টারে কাজ করছিলেন। তিনি গোলাপি রঙের হিজাব পরে অফিসে এসেছিলেন।

হিজাব পরে ডিউটিতে গিয়েছিলেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। আর তার জেরে ওই স্বাস্থ্যকর্মীকে এক আধিকারিক হেনস্থা করেছেন বলে অভিযোগ। কর্ণাটক নয়, এই বাংলার মালদার একটি প্রত্যন্ত গ্রামের ঘটনা। ওই সরকারি স্বাস্থ্যকর্মী পরে ওই অভিযুক্ত আধিকারিকের বিরুদ্ধে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। মালদার রতুয়ার বিএমওএইচ মাসুদ রহমান বলেন, এক এএনএমের কাছে থেকে অভিযোগ পেয়েছি। এনিয়ে তদন্ত হবে। এরপর ওপরমহলে জানিয়ে দেব।

সূত্রের খবর, প্রায় ১৫ বছর ধরে আনোয়ারা খাতুন নামে ওই এএনএম গ্রামের সাব সেন্টারে কাজ করছিলেন। তিনি গোলাপি রঙের হিজাব পরে অফিসে এসেছিলেন। এদিকে সাধারণত অন্যান্য সহকর্মীরা গোলাপি শাড়ি বা গোলাপি চুড়িদার পরেই আসেন। এদিকে তাঁর অভিযোগ গত এক সপ্তাহ ধরেই শম্পা প্রামাণিক নামে রতুয়া ১ ব্লকের এক নার্স তাঁর হিজাব পরা নিয়ে হেনস্থা করছেন।

আনোয়ারার অভিযোগ, এমনিতে ওই নার্স আগে কিছু বলেননি। মাস দুয়েক আগে আমাকে সবার সামনে বললেন অফিসে হিজাব পরে আসা উচিৎ নয়। আমি প্রশ্ন করতেই তিনি বকাঝকা শুরু করে দেন। এরপর বুধবার তিনি হঠাৎ করে আমার মাসিক রিপোর্ট নিলেন না। মুখের উপর দরজা বন্ধ করে দিলেন। তবে ওই নার্স এনিয়ে কোনও মন্তব্য করে চাননি।এদিকে কিছুদিন আগেই মুর্শিদাবাদের এক স্কুলে বোরখার বদলে স্কুল ইউনিফর্ম পরে আসতে বলায় তুমুল অশান্তি শুরু হয়েছিল। এবার হিজাব নিয়ে নয়া বিতর্ক মালদায়। 

বন্ধ করুন