বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মারার আগে যদি কব্জি ভেঙে যায়, সুকান্তকে পালটা বিঁধলেন অনুব্রত, ছাগল বলেও সম্বোধন
অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি
অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি

মারার আগে যদি কব্জি ভেঙে যায়, সুকান্তকে পালটা বিঁধলেন অনুব্রত, ছাগল বলেও সম্বোধন

  • তিনি বলেন, এক ভেড়া ছিল, এক ছাগল এসেছে।

অনুব্রত গড় বীরভূমে এসে মুখ খুলেছিলেন বিজেপির নয়া রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তিনি বলেছিলেন,মামলা যখন খেতেই হবে যখন মার দিয়েই মামলা খাওয়া ভালো। তার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মুখ খুললেন খোদ অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন, মারতে গেলেও তো হাতে করে মারতে হবে নয়তো লাঠি করে মারতে হবে। যদি কব্জিটা ভেঙে যায়। তার আগে যদি কব্জিটা ভেঙে যায়।তবে কী করে মারবে? একেবারে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে সুর টানলেন অনুব্রত। তবে এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। একেবারে পদের নাম করে বিজেপির রাজ্য সভাপতিতে তীব্র কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। 

 

এদিকে কাটোয়ায় বিজেপির গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের জেরে এদিন ধুন্ধুমার কাণ্ড। এদিন কাটোয়ার দাইহাটে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও প্রাক্তন রাজ্য সভাপতির কর্মসূচি ছিল। তার আগে তুমুল ভাঙচুর শুরু হয় পার্টি অফিসে। এনিয়ে চরম অস্বস্তিতে বিজেপি নেতৃত্ব। এবার বিজেপির সেই দ্বন্দ্বকে ঘিরেও টিপ্পনি অনুব্রতর। এর সঙ্গেই বিজেপির বর্তমান  ও প্রাক্তন রাজ্য সভাপতিকে জোরালো কটাক্ষ অনুব্রতর। এদিন তিনি বলেন, এক ভেড়া ছিল, এক ছাগল এসেছে। ছাগল আর ভেড়ার বুদ্ধি আর কী হবে! যেমন ছাগল তেমন ভেড়া।রাজ্যে বিজেপির প্রথম যে প্রেসিডেন্ট ছিলেন সে ভেড়া। এখন যে রাজ্যের প্রেসিডেন্ট তা ছাগল।  

 

বন্ধ করুন