বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Anubrata Mondal-CBI: পিছিয়ে গেল অনুব্রতকে হেফাজতে নেওয়ার মামলা, সুপ্রিম কোর্টে পরের সপ্তাহে শুনানি

Anubrata Mondal-CBI: পিছিয়ে গেল অনুব্রতকে হেফাজতে নেওয়ার মামলা, সুপ্রিম কোর্টে পরের সপ্তাহে শুনানি

অনুব্রত মণ্ডল। সংগৃহীত ছবি

অনুব্রত মণ্ডল ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় হাইকোর্টের নির্দেশকে হাতিয়ার করে গরু পাচার মামলায় একই আবেদন করেন। যদিও তাতে কলকাতা হাইকোর্ট তাঁকে রক্ষাকবচ দেয়নি। তার পরেই বীরভূমের এই তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতিকে গ্রেফতার করে সিবিআই। এখন তিনি জেল হেফাজতে রয়েছেন। 

বীরভূমের তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে হেফাজতে নিতে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল সিবিআই। ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় তাঁকে সিবিআই হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করেছিলেন সিবিআইয়ের আইনজীবী। কিন্তু সেই মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল সুপ্রিম কোর্টে। একসপ্তাহের জন্য মামলাটির শুনানি পিছিয়ে গিয়েছে। ফলে আপাতত আসানসোল সংশোধনাগারেই রযেছেন অনুব্রত।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় নিজেদের হেফাজতে নিতে চাইছে সিবিআই। তাই তারা আবেদন করেছে সুপ্রিম কোর্টে। এই মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে রক্ষাকবচ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। সেটাকেই চ্যালেঞ্জ করে সর্বোচ্চ আদালতে যায় সিবিআই। আজ, সোমবার বিচারপতি হেমন্ত গুপ্ত এবং বিচারপতি বিভি নাগারত্নের ডিভিশন বেঞ্চ আগামী ১৮ অক্টোবর এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। আর অনুব্রত মণ্ডলের আইনজীবী সঞ্জীবকুমার দাঁ জানান, সুপ্রিম কোর্টে সিবিআই মামলাটি কিছু দিন পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি করেন। সেই আর্জি মেনে মামলাটি আগামী সপ্তাহে রাখা হয়েছে।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ সিবিআই সূত্রে খবর, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে একাধিকবার তলব করা হয়েছিল। কিন্তু তখন হাজিরা এড়িয়ে যান তিনি। পরে গ্রেফতারের আশঙ্কায় রক্ষাকবচ চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে যান। আদালত তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে অনুব্রতকে বলে নির্দেশ দেয়। আর সিবিআই তাঁকে গ্রেফতার করতে পারবে না বলেও অন্তর্বর্তী নির্দেশ দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। ওই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে স্পেশাল লিভ পিটিশন করে সিবিআই। সেখানে বলা হয়, অনুব্রতের রক্ষাকবচ আগাম জামিনের সমান। তাই রক্ষাকবচ খারিজ করার আর্জি জানান।

উল্লেখ্য, অনুব্রত মণ্ডল ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় হাইকোর্টের নির্দেশকে হাতিয়ার করে গরু পাচার মামলায় একই আবেদন করেন। যদিও তাতে কলকাতা হাইকোর্ট তাঁকে রক্ষাকবচ দেয়নি। তার পরেই বীরভূমের এই তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতিকে গ্রেফতার করে সিবিআই। এখন তিনি জেল হেফাজতে রয়েছেন। সেখান থেকে নিজেদের হেফাজতে নিতে চাইছেন সিবিআই অফিসাররা। ভোট পরবর্তী হিংসা মামলাতেও পদক্ষেপ শুরু করেছে সিবিআই।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

সোমবার ১৭ জেলায় হবে বৃষ্টি, কয়েকটিতে ৫০ কিমিতে ঝড়! কতদিন বর্ষণ চলবে রাজ্যে? ২-২ থেকে শেষ মুহূর্তের গোলে রুদ্ধশ্বাস জয়, ISL-এ খেলার পথে আরও এক বাড়াল মহমেডান তৃণমূলে চলে আসুন! বঞ্চিতদের 'ভগবান' বিচারপতিকে আহ্বান ব্রাত্য বসুর প্রেম টেকে না, বলিউডেও হিট পায়নি এই নেপো কিড, দারুণ করে মারামারি! বলুন তো কে? ওড়িশার হারে সোনায় সোহাগা মোহনবাগানের, চাপে ইস্টবেঙ্গল- রইল ISL-র পয়েন্ট টেবিল WPL 2024: মেগের ব্যাটে GG-কে ২৩ রানে হারিয়ে MI-কে টপকে লিগ টেবলের শীর্ষে উঠল DC এবারও আশাহত বাংলা, শুভদীপকে হারিয়ে কানপুরের বৈভব পেল ইন্ডিয়ান আইডলের ট্রফি সুখী দাম্পত্যের টিপস দিলেন দুবাইয়ের কোটিপতির স্ত্রী! বরের নির্দেশে কী কী করেন? ভারতের প্রথম মহিলা স্নাইপার হলেন বিএসএফের সুমন কুমারী, দেশের গর্ব বিয়ে করেই বউকে সোহাগে-আদরে ভরালেন কাঞ্চন, শ্রীময়ীকে জড়িয়েই বললেন কী?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.