HT বাংলা থেকে সেরা খবর পড়ার জন্য ‘অনুমতি’ বিকল্প বেছে নিন
বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Anubrata Mondal latest news: ‘আমি মাস্টারমাইন্ড নই!’ ফের আর্জি জানিয়েও সুপ্রিম কোর্টে জামিন মিলল না অনুব্রতর

Anubrata Mondal latest news: ‘আমি মাস্টারমাইন্ড নই!’ ফের আর্জি জানিয়েও সুপ্রিম কোর্টে জামিন মিলল না অনুব্রতর

দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে তিহার জেলে রয়েছেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। এর আগেও একাধিকবার তিনি জামিনের আবেদন করেছেন। কিন্তু প্রতিবারই সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

ফের আর্জি জানিয়েও সুপ্রিম কোর্টে জামিন মিলল না অনুব্রতর

ফের সুপ্রিম কোর্টে খারিজ হয়ে গেল অনুব্রত মণ্ডলের জামিনের আবেদন। তবে মঙ্গলবার শুনানি তিনি তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। যা তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।  

শীর্ষ আাদালতের শুনানিতে বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা প্রশ্ন করেন, ‘গরু পাচারকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত এনামূল হক জামিন পেয়েছেন। বিএসএফ আধিকারিক সতীশ কুমার জামিন পেয়েছেন। আমি তো মাস্টারমাইন্ড নই। তারপরও আমাকে কেন আটকে রাখা হচ্ছে জেলে?’

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে তিহার জেলে রয়েছেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। এর আগেও একাধিকবার তিনি জামিনের আবেদন করেছেন। কিন্তু প্রতিবারই সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়। এ দিনও অনুব্রতর জামিনের বিরোধিতার করেন ইডি-র আইনজীবী অতিরিক্ত সলিসিটর জেলারেল এস ভি রাজু। তিনি জামিনের বিপক্ষে বলেন, ‘অনুব্রত মণ্ডল প্রভাবশালী। জামিন পেলেই তিনি গোটা তদন্ত প্রভাবিত করার চেষ্ঠা করতে পারেন।’ তিনি অনুব্রতর হিসাবরক্ষক মণীষ কোঠারির দেওয়া বয়ানেরও উল্লেখ করে সর্বোচ্চ আদালতে।  

(পড়তে পারেন। কুণাল ঘোষের চিঠির জবাব দিলেন অমিত শাহ, শিশিরের বিরুদ্ধে কি সিবিআই তদন্ত হবে?‌

(পড়তে পারেন। কেন্দ্র বিরোধী মিছিলে লোক কম, মেজাজ হারালেন শোভনদেব)

জামিন প্রসঙ্গে শীর্ষ আদালত বলে, আগে তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে চার্জগঠন করা হোক, তারপর বিষয়টি নিয়ে ভেবে দেখা হবে। জানুয়ারি মাসে তৃতীয় সপ্তাহে এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে। এই সময়ের মধ্যে ট্রায়াল কোর্টে সমস্ত নথি জমা দেবে সিবিআই ও ইডি। 

গরু পাচার মামলা ২০২২ সালে সালের ১১ অগস্ট অনুব্রত মণ্ডলকে গ্রেফতার করা হয়। ৭ মার্চ তাঁকে দিল্লি নিয়ে যায় ইডি। ২১ মার্চ থেকে তিনি তিহার জেলে বন্দি। একই মামলায় অনুব্রত মেয়ে সুকন্যাও তিহারে বন্দি রয়েছেন। 

এর মাঝে বেশ কয়েকবার অসুস্থও হয়ে পড়েন বীরভূমের প্রাক্তন তৃণমূল জেলা সভাপতি। তিনি বার কয়েক জামিনেরও আবেদন করেন। কিন্তু প্রতিবার তাঁর আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আদালত। এবার তিনি আদালতের কাছে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, তিনি কী মাস্টারমাইন্ড? তবে কেন তাঁকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। 

বাংলার মুখ খবর