বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আড়ি পাতা হয়েছিল অনুব্রতর ফোনে? নেত্রীর দেখানো পথে প্লাস্টার সাঁটলেন কেষ্ট
অনুব্রত মণ্ডল (ফাইল ছবি)

আড়ি পাতা হয়েছিল অনুব্রতর ফোনে? নেত্রীর দেখানো পথে প্লাস্টার সাঁটলেন কেষ্ট

  • ২১শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে মমতা জানিয়েছিলেন, আমি কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে পারি না। কারণ ফোন ট্যাপ হচ্ছে। তাই ফোনই প্লাস্টার করে দিয়েছি।

পেগাসাস বিতর্কের মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারকে কার্যত তুলোধোনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফোনে আড়িপাতার বিরুদ্ধে প্রতীকী প্রতিবাদ জানিয়েছেন মমতা। নিজের ফোনে প্লাস্টার সেঁটেছেন তিনি। তবে এবার দিদির দেখানো পথে হাঁটতে চাইছেন ভাইয়েরাও। এবার তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের ফোনেও দেখা গেল প্লাস্টার সাঁটা রয়েছেন। ক্যামেরার অংশটি পুরোপুরি বন্ধ। 

২১শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে মমতা জানিয়েছিলেন, ‘আমি কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে পারি না। কারণ ফোন ট্যাপ হচ্ছে। তাই ফোনই প্লাস্টার করে দিয়েছি। তবে ভারত সরকারকে প্লাস্টার করতে দেব না। ওরা থাকলে দেশ বরবাদ হয়ে যাবে। এমনকী নিজেদের মন্ত্রী, অফিসারদের ফোনও ট্যাপ করে নিয়েছে। এমনকী বহু বিচারপতির ফোনও ট্যাপ হয়েছে।’ একেবারে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে ইতিমধ্যেই দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন আইটি সেক্টরের কর্মীরাও তাঁদের মোবাইলে, ল্যাপটপের ক্যামেরা লিউকোপ্লাস্ট দিয়ে ঢেকে দিয়েছেন।

এবার তাৎপর্যপূর্ণভাবে নেত্রীর দেখানো পথেই হাঁটতে শুরু করলেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁর স্মার্ট ফোনেও এখন প্লাস্টার করা। শুক্রবার বোলপুরে বিজেপি থেকে একঝাঁক নেতা কর্মী তৃণমূলে যোগ দেন। সেই অনুষ্ঠানেই দেখা যায় অনুব্রত মণ্ডল ওরফে কেষ্টর ফোনে লিউকোপ্লাস্ট সাঁটা রয়েছে। তবে এনিয়ে সরাসরি কোনও প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছেন অনুব্রত।

বন্ধ করুন