বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অনুব্রতকে জমি হস্তান্তরের রহস্য খুলতে ভারত সেবাশ্রমের সন্ন্যাসীকে তলব করল ইডি

অনুব্রতকে জমি হস্তান্তরের রহস্য খুলতে ভারত সেবাশ্রমের সন্ন্যাসীকে তলব করল ইডি

দিল্লিতে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন ভারত সেবাশ্রম সংঘের মহারাজ।

অভিযোগ সেই জমি বিক্রি করে মুলুক গ্রামে প্রতিষ্ঠান স্থাপনের জন্য ভারত সেবাশ্রম সংঘকে চাপ দেয় স্থানীয় কয়েকজন যুবক। আর সুরুলের জমি অনুব্রত মেয়ে সুকন্যার সংস্থাকে বিক্রি করতে বাধ্য করা হয়।

গরুপাচারের তদন্তে এবার বীরভূমে ভারত সেবাশ্রম সংঘের সন্ন্যাসীকে তলব করল ইডি। সংঘের বেশ খানিকটা জমি কার্যত দখল করেছিেলন অনুব্রত। নামমাত্র দামে সেই জমির হাতবদল হয়। সেব্যাপারে বিস্তারিত জানতেই সন্ন্যাসীকে তলব করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

মঙ্গলবার বেলা ১১.৩০ মিনিট নাগাদ দিল্লিতে ইডির সদর দফতরে হাজিরা দেন ভারত সেবাশ্রম সংঘের সন্ন্যাসী। ইডি সূত্রে খবর, গরুপাচারের তদন্তে নেমে অনুব্রতর যে বিপুল সম্পত্তির খোঁজ পাওয়া গিয়েছে তার মধ্যে রয়েছে সুরুল গ্রামে ১.৪ একর একটি জমি। এই জমির মালিক ছিলেন সুচিন্ত্যকুমার চট্টোপাধ্যায়। প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বানানোর জন্য জমিটি ভারত সেবাশ্রম সংঘকে দান করেছিলেন তিনি। অভিযোগ সেই জমি বিক্রি করে মুলুক গ্রামে প্রতিষ্ঠান স্থাপনের জন্য ভারত সেবাশ্রম সংঘকে চাপ দেয় স্থানীয় কয়েকজন যুবক। আর সুরুলের জমি অনুব্রত মেয়ে সুকন্যার সংস্থাকে বিক্রি করতে বাধ্য করা হয়। ২০২১ সালে মোট ১ কোটি ৬০ লক্ষ টাকায় জমিটি বিক্রি হয়। মোট ১৫টি কিস্তিতে তার দাম শোধ করে অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ের সংস্থা।

সত্যিই জমি বিক্রি করতে ভারত সেবাশ্রম সংঘের ওপর অনুব্রত চাপ তৈরি করেছিলেন কি না? জমির ন্যায্য দাম তারা পেয়েছিল কি না এসব খতিয়ে দেখছে ইডি। যদিও এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে কোনও মন্তব্য করেননি সন্ন্যাসী।

 

বন্ধ করুন