বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সিউড়ির ব্যাঙ্কে তল্লাশি, ১৫০ বেনামি অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকার খোঁজ পেল CBI

সিউড়ির ব্যাঙ্কে তল্লাশি, ১৫০ বেনামি অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকার খোঁজ পেল CBI

সিউড়ি সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কে সিবিআই আধিকারিকরা।

ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের কাছে তিনি জানতে চান, কী ভাবে নথি যাচাই না করে ব্যাঙ্কে ১৫০টি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলতে দিলেন তিনি? সুশান্তবাবু জানান, আপনার ব্যাঙ্কে কে এসেছিল তা আমি জানি, কিন্তু আপনার মুখ থেকে তা শুনতে চাই।

গরুপাচারকাণ্ডের তদন্তে সিউড়িতে সমবায় ব্যাঙ্কের শাখায় তল্লাশি চালাল সিবিআই। বৃহস্পতিবার দুপুরে সিউড়ির সমবায় ব্যাঙ্কে পৌঁছন গরুপাচারকাণ্ডের প্রধান তদন্তকারী আধিকারিক সুশান্ত ভট্টাচার্য। সিবিআই সূত্রে খবর, ১৫০টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রায় ১০ কোটি কালো টাকা সাদা করা হয়েছে। এদিন ব্যাঙ্কের ম্যানেজারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন সুশান্তবাবু। সঙ্গে সংগ্রহ করেন যাবতীয় নথি। সঙ্গে ৪ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে তারা।

বৃহস্পতিবারই গরুপাচারকাণ্ডে অনুব্রত মণ্ডলকে ফের ১৪ দিনের জন্য জেল হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। এদিন সকালে আসানসোল আদালতে সেসব পর্ব মিটিয়ে সটান সিউড়ি চলে আসেন সুশান্তবাবু। তার পর হানা দেন সমবায় ব্যাঙ্কে। সেখানে ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের কাছে তিনি জানতে চান, কী ভাবে নথি যাচাই না করে ব্যাঙ্কে ১৫০টি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলতে দিলেন তিনি? সুশান্তবাবু জানান, আপনার ব্যাঙ্কে কে এসেছিল তা আমি জানি, কিন্তু আপনার মুখ থেকে তা শুনতে চাই। এমনকী তদন্তে সহযোগিতা না করলে তাঁকে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে ম্যানেজারকে সতর্ক করেন তিনি।

এর পর সিবিআই আধিকারিকদের নির্দেশে ব্যাঙ্কের রেকর্ড রুম থেকে নথি উদ্ধার করেন কর্মীরা। তার পর তা সিবিআই আধিকারিকদের হাতে তুলে দেন। বলে রাখি, লালন শেখের মৃত্যুর ঘটনায় অন্যান্য CBI আধিকারিকদের সঙ্গে সুশান্ত ভট্টাচার্যের নামে FIR করেন মৃতের স্ত্রী। পরদিনই সেই FIR-এ স্থগিতাদেশ দেয় আদালত। বুধবার নিম্ন আদালতে খারিজ হয় অনুব্রতর জামিনের আবেদন। তার পরই কি খোলা ব্যাটে ময়দানে নামলেই সুশান্তবাবু?

 

বন্ধ করুন