বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দমদম মেট্রো স্টেশনে ১৫ লক্ষ টাকার সোনার গয়না-সহ গ্রেফতার ১
দমদম মেট্রো স্টেশনে ১৫ লক্ষ টাকার সোনার গয়না-সহ গ্রেফতার ১  ছবিটি প্রতীকী ( সৌজন্য :‌ পিটিআই) (PTI)
দমদম মেট্রো স্টেশনে ১৫ লক্ষ টাকার সোনার গয়না-সহ গ্রেফতার ১  ছবিটি প্রতীকী ( সৌজন্য :‌ পিটিআই) (PTI)

দমদম মেট্রো স্টেশনে ১৫ লক্ষ টাকার সোনার গয়না-সহ গ্রেফতার ১

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই অভিযুক্তের কাছ থেকে ৩8৫ গ্রাম সোনার গয়না বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে যার বর্তমান বাজার মূল্য ১৫ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা।

ঢাকে কাঠি পড়তে আর হাতেগোনা দিনের অপেক্ষা। সে কারণে শহরজুড়ে নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে। প্রত্যেকটি গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে চলছে চেকিং, ধরপাকড়। উৎসবের মরশুমে ইতিমধ্যেই কেনাকাটা শুরু করে দিয়েছেন বাঙালিরা। একদিকে যখন মেতে রয়েছেন রাজ্যবাসীরা, সেই ফাঁকে চুপিসারে হয়ে যাচ্ছিল বড়ধরনের পাচার। মেট্রোয় পাচার করা হচ্ছিল বিপুল পরিমাণে সোনার গয়না। তবে মেট্রো কর্তৃপক্ষের তৎপরতায় তা রুখে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

দমদম মেট্রো স্টেশন থেকে প্রচুর পরিমাণে সোনা পাচার করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে এক ব্যক্তিকে। অভিযুক্ত কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা মূল্যের সোনার গয়না উদ্ধার করেছে আরপিএফের জওয়ানেরা। এরপর সিঁথি থানার হাতে তুলে দেওয়া হলে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, ওই অভিযুক্তের কাছ থেকে ৩8৫ গ্রাম সোনার গয়না বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে যার বর্তমান বাজার মূল্য ১৫ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা।

মেট্রো সূত্রে জানা গিয়েছে, যাত্রীদের চেকিং করার সময় অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির গতিবিধি দেখে সন্দেহ হয়েছিল কর্তব্যরত আরপিএফ কর্মীদের। অভিযুক্তকে আটক করে তল্লাশি চালাতে গিয়ে তার কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা মূল্যের সোনার গয়না উদ্ধার করে মেট্রো স্টেশনে কর্তব্যরত আরপিএফ জওয়ানেরা। তারপর অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তর নাম বাবলু ঘড়ুই। অভিযুক্ত হুগলি জেলার বাসিন্দা বলে জানতে পেরেছে পুলিশ।

মেট্রো সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার বিকেল চারটে নাগাদ দমদম মেট্রো স্টেশনের গেটে যাত্রীদের ব্যাগ চেকিং করার কাজ চলছিল।

মেটাল ডিটেক্টরের মাধ্যমে বাবলুর ব্যাগ চেকিং করতে গিয়ে তার ব্যাগের মধ্যে ধাতব বস্তুর উপস্থিতি টের পান নিরাপত্তারক্ষীরা। সঙ্গে সঙ্গে তার ব্যাগে তল্লাশি চালানো হয়। ওই ব্যাগের মধ্যে থেকেই উদ্ধার হয় ওই বিপুল পরিমাণে সোনা। তবেই ওই সোনার বৈধ নথিপত্র দেখাতে পারেনি বাবলু। সোনার উৎসের সম্পর্কেও কোনও তথ্য দিতে পারেনি অভিযুক্ত। তারপরে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশের হাতে তুলে দেয় মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

 

বন্ধ করুন