বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌দড়ি ছেঁড়া গরু আবার খুঁটিতে বাঁধা হল’‌, মুকুলের প্রত্যাবর্তনে কটাক্ষ অনুব্রতর
অনুব্রত মণ্ডল, ফাইল ছবি
অনুব্রত মণ্ডল, ফাইল ছবি

‘‌দড়ি ছেঁড়া গরু আবার খুঁটিতে বাঁধা হল’‌, মুকুলের প্রত্যাবর্তনে কটাক্ষ অনুব্রতর

  • মুকুলের তৃণমূল কংগ্রেসে প্রত্যাবর্তন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্তই শেষ কথা বলে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল।

চার বছর পর আবার পুরনো দলে ফিরলেন মুকুল রায়। জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শেষপর্যন্ত ছেলেকে নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরলেন বিজেপির সর্বভারতীয় নেতা মুকুল রায়। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে মুকুলের যোগদান অনুষ্ঠানে মমতা বলেন, ‘‌ওল্ড ইজ গোল্ড। এতদিনে শান্তি পেল।’‌ মুকুলের তৃণমূল কংগ্রেসে প্রত্যাবর্তন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্তই শেষ কথা বলে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। তবে তার মধ্যেই কটাক্ষ ছুড়ে দিয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছিল, আবার খুঁটিতে এনে বাঁধা হল।’

এদিকে মুকুল রায়ের তৃণমূল কংগ্রেসে ফেরা নিয়ে কটাক্ষ করলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘‌চাণক্য আর কেউ নয়। একমাত্র চাণক্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উনি মনে করেছেন মুকুল রায়কে দলে নেবেন তাই নিয়েছেন। এই বিষয়ে উনি বলতে পারবেন। আমি তো কলকাতায় নেই।’‌ আরও অনেকেই তো বিজেপি থেকে ফিরতে চাইছেন। কী বলবেন?‌ অনুব্রতর সপাটে জবাব, ‘‌গোয়ালের গরু দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছিল, আবার খুঁটিতে এনে বাঁধা হল।’‌

দু’‌বছর তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে চালকল ও জমি–দুর্নীতির অভিযোগ এনেছিলেন মুকুল রায়। রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক করে মুকুল বলেছিলেন, ‘সব কাগজ হাতে নিয়ে বলছি। এটা ট্রেলার মাত্র। জবাব দিতে হবে অনুব্রতকে।’ সেবার অনুব্রতর প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘সব মিথ্যে। উনি মিথ্যুক।’ মুকুল রায় ফিরেছেন, অনেকেই ফেরার কথা ভাবছেন। কেন? এই প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘‌গোয়ালে অনেক গরু থাকে জানেন, যারা রাতে দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে যায়। সকালে আবার গোঁজে এনে বেঁধে দেওয়া হয়৷ এটা আবার বাঁধা হয়েছে।’‌

বন্ধ করুন