বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Asansol containment zones-সামনেই ভোট, বিধিনিষেধ বেশ কিছু ওয়ার্ডে
আসানসোল রেলওয়ে স্টেশন। ছবি সৌজন্যে ফেসবুক।

Asansol containment zones-সামনেই ভোট, বিধিনিষেধ বেশ কিছু ওয়ার্ডে

  • দুই পুরনিগমেরই পুর কমিশনার আলাদা আলাদাভাবে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

‌আসানসোলে পুরভোটের আর হাতে গোনা দিন বাকি। তার আগে এই আসানসোলের ৮টি ওয়ার্ডের বেশ কিছু এলাকাকে মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করেছে প্রশাসন। ভোটের মুখে এভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় স্বভাবতই উদ্বিগ্ন প্রশাসন।

প্রতিদিনই রাজ্যে দৈনিক করোনা সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে। পশ্চিম বর্ধমানও তার থেকে বাদ নেই। এই পরিস্থিতিতে শনিবার প্রশাসনের তরফ থেকে আসানসোল ও দুর্গাপুরের বেশ কিছু এলাকাকে মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা হয়। দুই পুরনিগমেরই পুর কমিশনার আলাদা আলাদাভাবে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

 প্রশাসনের পেশ করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আসানসোল পুরনিগমের যে ৮টি ওয়ার্ড মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোনের মধ্যে পড়ছে, সেগুলি হল ৪০, ৪৩, ৪৫, ৫১, ৫৩, ৫৭, ৭৫ ও ১০৭ নম্বর ওয়ার্ড। যে সব এলাকা মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে, তাতে চারটি ফ্ল্যাটও রয়েছে। আগামী ২২ জানুয়ারি এই আসানসোলেই পুরনিগমের ভোট। সব রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরাই তাঁদের সাধ্যমতো প্রচার সারছেন। কিন্তু যেভাবে প্রতিদিন করোনার সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে ভোটাররা কী শেষ পর্যন্ত বুথমুখী হবেন, তা নিয়েই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

এদিকে দুর্গাপুর পুরনিগম এলাকায় ভোট না থাকলেও সেখানে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। দুর্গাপুর পুরনিগম এলাকায় তিনটি ওয়ার্ড ১০, ২২ ও ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের বেশ কিছু রাস্তাকে মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। সম্প্রতি আসানসোল পুরনিগম এলাকায় বেশ কিছু বাজারে যাতে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সেবিষয়ে একটি বৈঠক হয়। এদিন আসানসোল চেম্বার অফ কমার্সের সদস্যরা মহকুমা শাসকের কাছে আবেদন করেন যাতে আসানসোলের বাজার যাতে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা না হয়। তবে পুলিশের তরফে এলাকায় সচেতনতা বাড়াতে বিশেষ অভিযান চালানো হয়েছে।

বন্ধ করুন