বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সস্তায় পুরনো মোহর বিক্রির নামে ফের প্রতারণা, এবার ঠকলেন এক মহিলা জ্যোতিষী
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

সস্তায় পুরনো মোহর বিক্রির নামে ফের প্রতারণা, এবার ঠকলেন এক মহিলা জ্যোতিষী

  • চলতি সপ্তাহেই স্বর্ণমুদ্রা বিক্রির নামে রানাঘাট পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর শংকর অধিকারী ১২ লক্ষ টাকা প্রতারণার শিকার হন।

সস্তায় পুরনো মোহর কিনতে গিয়ে রাজ্যে প্রতারিত হলেন আরও এক ব্যক্তি। আসল মোহর দেখিয়ে নকল মোহর দিয়ে ২.৫ লক্ষ টাকা নিয়ে পালাল প্রতারকরা। রানাঘাটের পর এবার প্রতারণার শিকার বারাকপুরের এক জ্যোতিষি। ইতিমধ্যে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন স্বাতীলেখা বন্দ্যোপাধ্যায় নামে ওই মহিলা। তাঁর প্রতারণার কাহিনীর সঙ্গে মিল রয়েছে রানাঘাটের প্রতারিত তৃণমূল নেতার।

চলতি সপ্তাহেই স্বর্ণমুদ্রা বিক্রির নামে রানাঘাট পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর শংকর অধিকারী ১২ লক্ষ টাকা প্রতারণার শিকার হন। তিনি জানান, এক নির্মাণকর্মীর মাধ্যমে এই মুদ্রা ক্রয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। গোপাল সরদার নামে বীরভূমের বাসিন্দা এক যুবক তাঁকে প্রতারণা করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। স্বাতীলেখাদেবীর সঙ্গেও ঘটেছে প্রায় একই ঘটনা।

তিনি জানান, মাস কয়েক আগে বাড়িতে নির্মাণকাজ চলার সময় এক শ্রমিক তাঁকে জানান তাঁর কাছে পুরনো মোহর রয়েছে। নির্মাণকাজের সময় খোড়াখুড়ি করতে গিয়ে সেই মুদ্রা পেয়েছিলেন তিনি। সেই মুদ্রা সস্তায় বিক্রি করতে চান। মুদ্রা দেখতে যেতে হবে তারাপীঠে।

নির্মাণকর্মীর প্রস্তাবে তারাপীঠে যান স্বাতীলেখাদেবী। সেখানে তাঁকে একটি স্বর্ণমুদ্রা দেয় ওই নির্মাণকর্মী। বাড়ি এসে পরীক্ষা করে তিনি জানতে পারেন সেই মুদ্রা আসল। এর পর ওই রকম আরও মুদ্রা তাঁকে কেনার প্রস্তাব দেয় প্রতারক। রাজি হয়ে যান স্বাতীলেখা। ২.৫ লক্ষ বেশ কয়েকটি মুদ্রা নিয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। এর পর বুঝতে পারেন মুদ্রাগুলি নকল। সেই নির্মাণকর্মীর সঙ্গে আর যোগাযোগ করতে পারেননি তিনি। এর পরই বারাকপুর কমিশনারেটে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

 

বন্ধ করুন