বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'উনি তো BJP নেতার বাড়িতে গিয়ে খাচ্ছেন', মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে তোপ TMC নেতার
'উনি তো BJP নেতার বাড়িতে গিয়ে খাচ্ছেন', মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে তোপ TMC নেতার
'উনি তো BJP নেতার বাড়িতে গিয়ে খাচ্ছেন', মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে তোপ TMC নেতার

'উনি তো BJP নেতার বাড়িতে গিয়ে খাচ্ছেন', মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে তোপ TMC নেতার

স্নেহাশিস চক্রবর্তী জানান, ‘‌এই মুহূর্তে আমাদের কাছে গাইডলাইন রয়েছে, যাঁরা অন্য দল থেকে বিজেপিতে আসতে চায়, তাঁরা সর্বভারতীয় তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। সেখান থেকে অনুমোদন সাপেক্ষেই দলে নেওয়া যাবে।’‌

এবার বলাগড়ের বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন এলাকারই প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক। সম্প্রতি দলবদলুদের ফের তৃণমূলে জায়াগা দেওয়া নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন বলাগড়ের বিধায়ক। সেই প্রেক্ষিতেই পাল্টা তোপ দেগেছেন প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক অসীম মাজি।

এই প্রসঙ্গে বলাগড়ের প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক অসীম মাজি বর্তমান বিধায়ককে নিশানা করে জানান, ‘‌উনি বিধায়ক হতে পারেন। কিন্তু রাজনীতিতে কে দলে আসবে আর কে যাবে, আর কাকে বিজেপি দাগাতে হবে, সেটা কী উনি পয়সা নিয়ে ঠিক করে দেবেন?‌ দল কি ওনাকে তেমন কোনও নির্দেশ দিয়েছেন?‌’‌ তাঁর আক্রমণ এখানেই থেমে থাকেনি। একইসঙ্গে তিনি জানান, 'উনি তো বিজেপি নেতার বাড়িতে গিয়ে খাচ্ছেন। বিজেপি নেতার ছেলের সঙ্গে ঘুরছেন। অজয় দে বংশী কে?‌ অজয় দে বংশী হলেন কামালপুরের প্রাক্তন সিপিএম প্রধান। সিপিএম ছেড়ে তিনি বিজেপিতে গিয়েছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রয়েছে। পাঁচ মাস আগের পরিচয়টা জানুন। আর তাঁকে নিয়েই ঘুরছেন।'

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ফেসবুক পোস্টে বলাগড়ের বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী জানিয়ে দেন, 'তৃণমূল ছেড়ে যাঁরা ভোটের আগে বিজেপিতে চলে গিয়েছিলেন, তাঁদের দলে নেওয়ার মতো নির্দেশ আমাদের কাছে নেই। যদি আবেদন করেন, তাহলে তা দলের ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। লোকাল কারও কাছে এই ক্ষমতা নেই।' এই প্রসঙ্গে শ্রীরামপুরে তৃণমূলের সাংগঠনিক জেলা সভাপতি স্নেহাশিস চক্রবর্তী জানান, ‘‌এই মুহূর্তে আমাদের কাছে গাইডলাইন রয়েছে, যাঁরা অন্য দল থেকে বিজেপিতে আসতে চায়, তাঁরা সর্বভারতীয় তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। সেখান থেকে অনুমোদন সাপেক্ষেই দলে নেওয়া যাবে।’‌

বন্ধ করুন