বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মালদা সীমান্তে মাদক পাচার করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি যুবক
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

মালদা সীমান্তে মাদক পাচার করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি যুবক

  • চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ফেনসিডিল সিরাপের ১.৯৮ লক্ষেরও বেশি বোতল বাজেয়াপ্ত করেছে বিএসএফ।

শ্রেয়সী পাল

মালদা জেলার সীমান্ত এলাকায় বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি এক মাদক পাচারকারী। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে মালদার গোপলনগর আউটপোস্টে। জানা গিয়েছে, মাদক হিসেবে ব্যবহৃত কাশির সিরাপ পাচার করার চেষ্টা করছিল বাদশা শেখ (‌২৫)‌ নামে ওই যুবক। তার বাড়ি বাংলাদেশের তেলকুপি গ্রামে। এ ঘটনায় এক বিএসএফ জওয়ান আহত হয়েছেন।

বিএসএফ আধিকারিক জানান, ২৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের জওয়ানরা সূত্র মারফত খবর পায় যে কিছু ভারতীয় ও বাংলাদেশি পাচারকারী এই দেশ থেকে ওই দেশে প্রচুর পরিমাণে ফেনসিডিল সিরাপ পাচারের চেষ্টা করছে। ফেনসিডিল বাংলাদেশের কালো বাজারে মাদক হিসেবে অনেক দামে বিক্রি হয়। রাত ১০টা নাগাদ জওয়ানরা দেখেন, প্রায় ১২ জন মাথায় কিছু জিনিস নিয়ে বাংলাদেশের দিকে সন্তর্পণে এগোচ্ছে। সে সময় বর্ডারের ওই পারে বাংলাদেশেও কয়েকজন হাজির ছিল।

জওয়ানরা হানা দিতেই মাথায় থাকা ওই সব জিনিস নামিয়ে কয়েকজন পাচারকারী পালিয়ে যায়। তার মধ্যে কিছু কাঁটাতারে আটকে পড়ে। বিএসএফ জওয়ানরা সেগুলি উদ্ধার করতে গেলে বাংলাদেশি জওয়ানরা তাদের ওপর হামলা চালায় এবং এক জওয়ান আহত হন। আত্মরক্ষার খাতিরে ওই বিএসএফ জওয়ান গুলি চালালে গুলিবিদ্ধ হয় বাদশা শেখ। রবিবার তার দেহ বাংলাদেশ পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

২৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের কমান্ডার অনিলকুমার হোটকার বলেন, ‘‌বিএসএফের সতর্কতার জেরেই মাদক পাচারের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।’‌ বিএসএফের দক্ষিণবঙ্গ সীমান্ত কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি জানিয়েছে যে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ফেনসিডিল সিরাপের ১.৯৮ লক্ষেরও বেশি বোতল বাজেয়াপ্ত করেছে বিএসএফ।

বন্ধ করুন