বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > CAA বিরোধী সভায় নিজের ছবি পোস্ট, বাংলাদেশি ছাত্রীকে বহিষ্কার বিদেশ মন্ত্রকের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

CAA বিরোধী সভায় নিজের ছবি পোস্ট, বাংলাদেশি ছাত্রীকে বহিষ্কার বিদেশ মন্ত্রকের

  • এর পর গতকাল তাঁর কাছে পৌঁছেছে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের চিঠি। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে ভারত ছাড়তে হবে আফসারাকে।

সিএএ বিরোধী আন্দোলনে যোগদানের ছবি পোস্ট করায় ভারত থেকে বহিষ্কৃত হলেন এক ছাত্রী। অভিযোগ, ওই ছবির কারণ ব্যাখ্যা করতে তাঁকে বারবার কলকাতার ফরেনার রেজিস্ট্রেশন অফিসে ডাকা হলেও সাড়া দেননি তিনি। তাই আফসারা অনিকা মিম নামে ওই ছাত্রীকে ১৫ দিনের মধ্যে ভারত ছাড়তে বলে নির্দেশিকা দিয়েছে বিদেশ মন্ত্রক।

ডিসেম্বর থেকে বিশ্বভারতীতে লাগাতার CAA বিরোধী আন্দোলন চলছে। সেই আন্দোলনে বন্ধুদের সঙ্গে হাজির ছিলেন কলাভবনের ডিজাইন বিভাগের ছাত্রী আফসারাও। সেখানে বন্ধুদের সঙ্গে ছবি তুলে সোশ্যাল সাইটে তা পোস্ট করেন তিনি। সেই ছবি বিদেশ মন্ত্রকের আধিকারিকের চোখে পড়ে এর পরই গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আফসারাকে কলকাতার ফরেনার রেজিস্ট্রেশন অফিসে তলব করে ইমেইল করা হয়। কিন্তু আফসারা হাজিরা দেননি। ১৯ ফেব্রুয়ারি হাজিরা না দেওয়ায় ফের ২০ ফেব্রুয়ারি তাঁর কাছে ইমেইল পৌঁছয়। তাতে ২৪ ফেব্রুয়ারি ফের হাজিরা দিতে বলা হয় তাঁকে। সেদিনও কলকাতায় হাজিরা দেননি তিনি।

এর পর গতকাল তাঁর কাছে পৌঁছেছে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের চিঠি। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে ভারত ছাড়তে হবে আফসারাকে। এতে মাথায় বাজ পড়েছে ছাত্রীটির। কোথা থেকে কী হয়ে গেল বুঝতে পারছেন না তিনি।

আফসারার সহপাঠীরা জানিয়েছেন, CAA বিরোধী ওই বিক্ষোভে বিশ্বভারতীর ছাত্রছাত্রীরা তো বটেই, শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই একটি ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন আফসারা। তিনি প্রতিবাদে যোগ দেননি। ইতিমধ্যে গোটা প্রোফাইলটাই ডিলিট করে দিয়েছেন তিনি।

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে বিদেশমন্ত্রকের কাছে তাঁকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আর্জি জানাবেন ছাত্রীটি। বিষয়টিতে মুখ খোলেনি বিশ্বভারতী।



বন্ধ করুন