বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বর্ধমান হয়ে গেল 'বার্ডম্যান', রাজ্যপালের বানান বিভ্রাটে হাসির রোল
বর্ধমান হয়ে গেল 'বার্ডম্যান', রাজ্যপালের বানান বিভ্রাটে হাসির রোল{ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
বর্ধমান হয়ে গেল 'বার্ডম্যান', রাজ্যপালের বানান বিভ্রাটে হাসির রোল{ (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

বর্ধমান হয়ে গেল 'বার্ডম্যান', রাজ্যপালের বানান বিভ্রাটে হাসির রোল

  • এবার বর্ধমান সফরের কথা জানাতে গিয়ে বানান বিভ্রাট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

বাংলার রাজ্যপালের সঙ্গে সরকারের অহি–নকুল সম্পর্ক সবাই জানে। রাজ্যপালকে শাসকদল কখনও ‘পদ্মপাল', কখনও ‘বিবৃতিপাল’ এবং ‘মানসিক রোগী’ বলে আক্রমণ করেছে। তা নিয়ে হাসির রোল উঠেছিল। এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের টুইট নিয়ে হাসির রোল উঠল। তাও আবার নেট দুনিয়ায়। এখানে শাসকদলের হাত নেই। এবার টুইটে বর্ধমান সফরের কথা জানাতে গিয়ে বানান বিভ্রাট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজ্যপালের কলমের খোঁচায় ‘বর্ধমান’ হয়ে গেল ‘বার্ডম্যান’। আর তাতেই হইহই শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

রবিবাসরীয় সকালে দুটি টুইট করেন রাজ্যপাল। প্রথমটিতে তিনি জানান, আগামী ৪ জানুয়ারি (সোমবার) বর্ধমান সফরে যাচ্ছেন। সেখানে প্রথমে সর্বমঙ্গলা মন্দিরে পুজো দেবেন। তারপর যাবেন ১০৮ শিবমন্দিরে। সেখানে পুজো সেরে পৌঁছে যাবেন সার্কিট হাউসে। পরে সেখানে সাংবাদিক বৈঠক করবেন তিনি। একইসঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিকদের সঙ্গে। এই টুইটেই ‘বর্ধমান’-কে ‘বার্ডম্যান’ করে ফেলেন রাজ্যপাল! যা নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো হাসির খোরাক হতে হয় জগদীপ ধনখড়কে।

রবিবার টুইটে এক নেটিজেন লেখেন, ‘‌সাধারণ মানুষ এই ভুল করলে তা হয়তো মেনে নেওয়া যায়। তবে সাংবিধানিক প্রধানের কাছে এমন ভুল কেউ আশা করেন না।’‌ কেউ আবার রাজ্যপালকে খোঁচা দিয়ে লেখেন, ‘‌ভোটের আগে রাজনৈতিক নেতাদের মন্দিরে দেখা যায়। কিন্তু এখন রাজ্যপালকেও মন্দিরে দেখা যাচ্ছে!’‌ এছাড়া বাংলার সংস্কৃতি বিজেপি নেতা থেকে রাজ্যপাল জানেন না বলে একাধিক মন্তব্য উড়ে এসেছে।

বন্ধ করুন