বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করোনায় মৃতদের পরিবারকে ৫০,০০০ টাকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু, কীভাবে মিলবে? জানুন
করোনাভাইরাসে মৃতদের আর্থিক সাহায্য প্রদানের কাজ শুরু খরল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

করোনায় মৃতদের পরিবারকে ৫০,০০০ টাকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু, কীভাবে মিলবে? জানুন

  • ক্ষতিপূরণের জন্য কোথায় যেতে হবে? কী কী নথি লাগবে?

করোনাভাইরাসে মৃতদের আর্থিক সাহায্য প্রদানের কাজ শুরু খরল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এককালীন ৫০,০০০ টাকা দেওয়া হবে। পশ্চিমবঙ্গ বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট wbdmd.gov.in থেকে সেই সংক্রান্ত ফর্ম ডাউনলোড করতে হবে। যে ফর্ম বিভিন্ন নথির সঙ্গে জমা দেওয়ার আর্জি জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরপকার।

ক্ষতিপূরণের জন্য কোথায় যেতে হবে? 

১) পঞ্চায়েত এলাকা: বিডিও অফিস। 

২) পুর এলাকা: নিকটবর্তী মহকুমাশাসকের অফিস। 

৩) কলকাতা পুরনিগম: সংশ্লিষ্ট বোরো অফিস।

কী কী নথি লাগবে? 

  • করোনাভাইরাসে মৃত্যুর শংসাপত্র।
  • মৃতের ভোটার কার্ড/আধার কার্ড।
  • নিকটাত্মীয়ের ভোটার কার্ড/আধার কার্ড।
  • ব্যাঙ্কের পাসবইয়ের কপি/বাতিল চেক।
  • উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ প্রদত্ত লিগাল হেয়ার সার্টিফিকেট।
  • নিকটাত্মীয়ের প্রমাণ হিসেবে ম্যাজিস্ট্রেট/নোটারি পাবলিকের কাছ থেকে হলফনামা।

উল্লেখ্য, মাসকয়েক আগে করোনায় মৃতদের পরিবারকে ৫০,০০০ টাকার অনুদান দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এমনকী মৃত্যুর শংসাপত্রে করোনার উল্লেখ না করা থাকলেও সেই আর্থিক অনুদান মিলবে। শীর্ষ আদালত জানায, ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণ উল্লেখ করা নেই, এমন ক্ষেত্রেও রাজ্য সরকার ক্ষতিপূরণ দিতে অস্বীকার করতে পারবে না। বিচারপতি এম আর শাহ ও জাস্টিস এএস বোপান্নার বেঞ্চ রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে, বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে যাতে এই বিষয়ে বিস্তারিত প্রচার করতে হবে। পাশাপাশি আর্থিক অনুদানের জন্য আবেদন করার ৩০ দিনের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সেই টাকা দিতে হবে রাজ্যগুলিকে। এক্ষেত্রে রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর থেকে যে আর্থিক অনুদান দেওয়া হচ্ছে, এটাও উল্লেখ করতে হবে।

বন্ধ করুন