বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবারও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাবের জন্য ১০,০০০ টাকা দেবে মমতা সরকার
এবারও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাবের জন্য ১০,০০০ টাকা দেবে মমতা সরকার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
এবারও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাবের জন্য ১০,০০০ টাকা দেবে মমতা সরকার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

এবারও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাবের জন্য ১০,০০০ টাকা দেবে মমতা সরকার

  • সবমিলিয়ে এবার ৮ লাখ ৯৪ হাজার পড়ুয়াকে ট্যাব কেনার টাকা দেওয়া হবে।

কবে থেকে স্কুল-কলেজ খুলবে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। করোনাভাইরাস সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনই স্কুল-কলেজ খোলার পথে হাঁটেনি রাজ্য সরকার। তারইমধ্যে অনলাইনে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার স্বার্থে এবারও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাব কেনার জন্য ১০,০০০ টাকা দেবে নবান্ন। বুধবার একথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি জানান, গতবারের দ্বাদশ শ্রেণির ৮ লাখ ৭৬ হাজার পড়ুয়াকে ট্যাব কেনার জন্য ১০,০০০ টাকা দেওয়া হয়েছিল। সেইসময় যারা একাদশ শ্রেণিতে পড়ত এবং এবার দ্বাদশ শ্রেণিতে উঠেছে, তাদেরও ট্যাব কেনার জন্য টাকা দেবে রাজ্য সরকার। সবমিলিয়ে এবার ৮ লাখ ৯৪ হাজার পড়ুয়াকে ট্যাব কেনার টাকা দেওয়া হবে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন বন্ধ আছে রাজ্যের স্কুলগুলিতে। বিকল্প হিসেবে অনলাইনে পঠনপাঠন শুরু হলেও গ্রামের অধিকাংশ পড়ুয়ার ক্ষেত্রে স্মার্টফোন নেই। তার ফলে অনেক পড়ুয়ারাই সমস্যার মুখে পড়ছেন। সেই পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে গত বছরের ডিসেম্বরের গোড়ার দিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, রাজ্যের উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল এবং মাদ্রাসাগুলিকে অনলাইন দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ট্যাব প্রদান করা হবে। কিন্তু পরে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, পড়ুয়াদের সরাসরি ট্যাব দেওয়া হবে না। বরং সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১০,০০০ টাকা পাঠানো হবে। তা দিয়ে পড়ুয়ারা অনলাইনে ক্লাস করার ট্যাব বা প্রয়োজনীয় ডিভাইস কিনে নিতে পারবে। সেইমতো রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো হয়। যদিও শিক্ষক মহলের একাংশের অভিযোগ, যে কারণে পড়ুয়াদের ট্যাব প্রদান করা হয়েছিল, সেই উদ্দেশ্য পূরণ হয়নি। উলটে অনলাইনে আসক্তি বেড়েছে পড়ুয়াদের।

বন্ধ করুন