বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাজ্যে কমল দৈনিক আক্রান্ত, সংক্রমণের হার, তবে বাড়ল মৃতের সংখ্যা
রাজ্যে কমল দৈনিক আক্রান্ত, সংক্রমণের হার, তবে বাড়ল মৃতের সংখ্যা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
রাজ্যে কমল দৈনিক আক্রান্ত, সংক্রমণের হার, তবে বাড়ল মৃতের সংখ্যা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

রাজ্যে কমল দৈনিক আক্রান্ত, সংক্রমণের হার, তবে বাড়ল মৃতের সংখ্যা

  • দার্জিলিঙে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৬০-এ উপরেই থাকল।

রবিবার পশ্চিমবঙ্গে অনেকটা কমল দৈনিক করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা। সেইসঙ্গে কমেছে সংক্রমণের হারও। তারইমধ্যে দার্জিলিঙে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৬০-এ উপরেই থাকল।তা নিয়ে কিছুটা উদ্বেগ বেড়েছে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, রবিবার সকাল ন'টা পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫,২৮,৭২০। শেষ ২৪ ঘণ্টায় ৭০১ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। শনিবার সেই সংখ্যাটা ছিল ৭৬৯। সেইসঙ্গে শনিবারের তুলনায় রবিবার নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বেড়েছে। দৈনিক আক্রান্তের নিরিখে শীর্ষে আছে উত্তর ২৪ পরগনা (৯৩)। তারপর আছে দার্জিলিঙে ৬৪ জন, কলকাতায় ৬০ জন, নদিয়ায় ৪৯ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৪৬ জন, হুগলিতে ৪৩ জন এবং পূর্ব মেদিনীপুরে ৪২ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। দশের নীচে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুর (তিন), মালদহ (ছয়), মুর্শিদাবাদ (চার) এবং বীরভূম (পাঁচ) এবং পুরুলিয়ায় (সাত)।

তবে শনিবারের থেকে রবিবারের মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। রবিবার রাজ্যে করোনায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সর্বাধিক তিনজন করে করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা এবং নদিয়ায়। দু'জন করে মারা গিয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুর এবং হাওড়ায়। একজন করে মানুষের প্রাণহানি হয়েছে পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং কলকাতায়। বাকি জেলায় কোনও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। সবমিলিয়ে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ১৮,১৪৯ দাঁড়িয়েছে (১.১৯ শতাংশ)।

তারইমধ্যে শনিবারের তুলনায় রবিবার সুস্থ রোগীর সংখ্যা সামান্য বেড়েছে। রবিবার সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮২৭ জন। শনিবার সেই সংখ্যাটা ৮১৯ ছিল। সার্বিকভাবে রাজ্যে মোট ১৪,৯৯,৫৯৭ জন করোনা মুক্ত হয়েছে। যা শতাংশের বিচারে ৯৮.০৯। দৈনিক আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় কমেছে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা। আপাতত রাজ্যে ১০,৯৭৪ জনের শরীরে করোনা আছে। শনিবারের থেকে তা ১৩৯ কমেছে।

বন্ধ করুন