বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বীরভূম সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের তৎপরতায় হারানো লক্ষাধিক টাকা ফিরে পেলেন কৃষক
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বীরভূম সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের তৎপরতায় হারানো লক্ষাধিক টাকা ফিরে পেলেন কৃষক

  • উত্তমকুমার মণ্ডল নামে ওই কৃষকের সঙ্গে আর্থিক প্রতারণা করতে এবার নতুন ফন্দি আঁটে জামতাড়া গ্যাং, আর তা হল জিএসটি।

এটিএম কার্ড ব্লক হয়ে গেছে বা অ্যাকাউন্ট অ্যাক্টিভেট করতে হবে— এমন নতুন নতুন ফন্দি এঁটে সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লুঠপাট চালনোর ঘটনা আগেও ঘটেছে। কিছু ক্ষেত্রে টাকা ফিরে পাওয়া যায়। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কোনওদিনও পাওয়া যায় না। তবে এবার বীরভূম সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের তৎপরতায় হারানো টাকা ফিরে পেলেন এক কৃষক।

উত্তমকুমার মণ্ডল নামে ওই কৃষকের সঙ্গে আর্থিক প্রতারণা করতে এবার নতুন ফন্দি আঁটে জামতাড়া গ্যাং, আর তা হল জিএসটি। মাসখানেক আগে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের কর্মী পরিচয় দিয়ে বীরভূমের রাজনগরের রাউতাড়া গ্রামের বাসিন্দা উত্তমবাবুকে কেউ একজন ফোন করেন। জিএসটি সংক্রান্ত ভুল হয়েছে বলে তাঁর মোবাইল নম্বরে একটি ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড বা ওটিপি পাঠানো হয়। সেটি প্রতারককে জানিয়ে দেন উত্তমবাবু। একইসঙ্গে তাঁর কাছ থেকে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের গোপন তথ্য জেনে নেওয়া হয়। কয়েক মিনিটের মধ্যে অ্যাকাউন্ট থেকে ধাপে ধাপে ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়।

প্রতারিত হয়েছেন বুঝতে পেরে বীরভূম সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চে অভিযোগ দায়ের করেন উত্তমবাবু। তদন্তকারী আধিকারিকরা জানতে পারেন, ওই টাকা ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গিফট ভাউচার কেনা হয়েছে। প্রথমে সেই ভাউচারগুলির কোড বাতিল করে তদন্তকারী দল। এর পরই অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফারের মাধ্যমে ওই ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা বীরভূমের ওই কৃষকে ফিরিয়ে দেয় সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

বন্ধ করুন