বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Barrackpore: বিরিয়ানির দোকানে গুলিকাণ্ডে নয়া তথ্য, হুমকি ফোন এসেছিল মালিকের কাছে
বারাকপুরে এই বিরিয়ানির দোকানেই চলেছিল গুলি। নিজস্ব ছবি।

Barrackpore: বিরিয়ানির দোকানে গুলিকাণ্ডে নয়া তথ্য, হুমকি ফোন এসেছিল মালিকের কাছে

  • প্রাথমিকভাবে ঘটনার পরেই পুলিশ দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে দুষ্কৃতীদের শনাক্ত করার চেষ্টা করেছে। কারা গুলি চালিয়েছিল সেই বিষয়টি জানার চেষ্টা করছে মোহনপুর থানার পুলিশ।

বারাকপুরে বিরিয়ানির দোকানে গুলি চালানোর ঘটনায় নয়া তথ্য পেল পুলিশ। গুলিকাণ্ডের আগে হুমকি ফোন এসেছিল বিরিয়ানির দোকানের মালিকের কাছে। এখন কে বা কারা সেই হুমকি ফোন করেছিল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ঘটনার পরেই পুলিশ দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে দুষ্কৃতীদের শনাক্ত করার চেষ্টা করেছে। কারা গুলি চালিয়েছিল সেই বিষয়টি জানার চেষ্টা করছে মোহনপুর থানার পুলিশ।

গতকাল দুপুরে ভিড়ে ঠাসা বিরিয়ানির দোকানে তিনজন দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে বিরিয়ানির দোকান লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি চালায়। গুলিবিদ্ধ হন দোকানের কর্মী প্রদীপ সিংহ এবং একজন গ্রাহক। যার মধ্যে প্রদীপকে বি এন বসু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং গ্রাহককে ভর্তি করা হয় কল্যাণীর একটি হাসপাতালে। যদিও এই ঘটনায় বড়সর কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ জানতে পেরেছে দুষ্কৃতীরা তিন রাউন্ড গুলি চালিয়েছে। সেক্ষেত্রে বড় বিপদ ঘটে যেতে পারত।

দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ জানতে পেরেছে, দুষ্কৃতীরা হেলমেট পড়ে এসেছিল। তাদের পরনে ছিল কালো গেঞ্জি। এছাড়াও, তারা বারাসতের দিকেই যাচ্ছিল বলে মনে করছে পুলিশ। তারা কি স্থানীয় বাসিন্দা নাকি ভাড়াটে দুষ্কৃতী সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। গতকাল গ্রাহক ভর্তি এই বিরিয়ানির দোকানে গুলি চালানোর ঘটনার পরেই হুলুস্থুল পড়ে যায়। এখনও আতঙ্কে রয়েছেন দোকানের কর্মী থেকে শুরু করে গ্রাহকরা। মালিকের পাশাপশি দোকানের কর্মীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। দোকানের মালিক পুলিশকে জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে তার কাছে টাকা চেয়ে হুমকি ফোন এসেছিল। কারা সেই ফোন তাকে করেছিল তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এর পিছনে ব্যবসায়িক শত্রুতা নাকি ব্যক্তিগত শত্রুতা রয়েছে? তা এখনও স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে। দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

বন্ধ করুন