বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > উল্টো ছিল জাতীয় পতাকা, নিজেই তা ঠিক করে উত্তোলন করলেন দিলীপ ঘোষ, মিটল না বিতর্ক!
জাতীয় পতাকা উত্তোলন করছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
জাতীয় পতাকা উত্তোলন করছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

উল্টো ছিল জাতীয় পতাকা, নিজেই তা ঠিক করে উত্তোলন করলেন দিলীপ ঘোষ, মিটল না বিতর্ক!

  • এদিন সকালে তারাপীঠ মন্দিরে পুজো দেন দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে তিনি সোজা চলে যান রামপুরহাটের দলীয় কার্যালয়ে। সেখানে পতাকা উত্তোলনের সময়ই ঘটে বিপত্তি।

প্রজাতন্ত্র দিবসে উল্টো করে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে গিয়ে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়লেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যদিও পরে তা চোখে পড়ায় আবার সঠিকভাবে উত্তোলন করা হয় জাতীয় পতাকা। কিন্তু তার পরও মঙ্গলবার বীরভূমের রামপুরহাটের দলীয় কার্যালয়ের এই ঘটনায় বিড়ম্বনায় পড়ল গেরুয়া শিবির। বিজেপি সাংসদ নিজেও ‘‌অস্বস্তিকর’‌ ঘটনা বলে স্বীকার করেছেন।

এদিন সকালে তারাপীঠ মন্দিরে পুজো দেন দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে তিনি সোজা চলে যান রামপুরহাটের দলীয় কার্যালয়ে। সেখানে পতাকা উত্তোলনের সময়ই ঘটে বিপত্তি। রাজ্য বিজেপি সভাপতি পতাকা তুলতে তুলতেই দেখতে পান, সেটি উল্টো করে লাগানো। তার পর দ্রুত নিজেই পতাকাটি সঠিকভাবে লাগিয়ে জাতীয় সঙ্গীত গান দিলীপ ঘোষ। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘‌জাতীয় পতাকাকে অসম্মান করার কোনও উদ্দেশ্য কারও ছিল না। ভুল করা হয়েছে। সংশোধনও করা হয়েছে।’‌

তিনি আরও বলছিলেন, ‘‌পতাকা তো আমি লাগাইনি। কিন্তু পতাকা উত্তোলন করার সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টা আমার চোখে পড়ে। তখন নিজেই হাত লাগাই। তার পর সঠিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করি।’‌ এদিন সেখানে উপস্থিত দলের কর্মীদের দিলীপ ঘোষ পরিষ্কার বলেছেন, যাতে এই ঘটনা আর কখনও না হয়। তবে এদিন রামপুরহাটের এই ঘটনায় উঠেছে সমালোচনার ঝড়। কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তৃণমূল নেতারা।

উল্লেখ্য, এদিন তারাপীঠ মন্দিরে পুজো দিয়ে বেরিয়ে দিলীপ ঘোষ হুঙ্কার দিয়ে জানান,‌ বিধানসভা নির্বাচনে ২২০টিরও বেশি আসন বিজেপি পাবে। ভিক্টোরিয়া মোমিরিয়ালে নেতাজি জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে স্লোগান বিতর্কে ফের এদিন মুখ খোলেন তিনি। বলেন, ‌‌এই ঘটনাকে তিনি ১০০ শতাংশ সমর্থন করেন। এবং সকল জায়গায় সবসময় ‘‌জয় শ্রী রাম’‌ স্লোগান দেওয়া যায় বলেই মত বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

বন্ধ করুন