বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌দিলীপ ঘোষ মুর্দাবাদ’‌, ‘‌খেলা হবে’‌, দিলীপের গাড়ি ঘিরে সপ্তমে উঠল স্লোগান
দিলীপ ঘোষ
দিলীপ ঘোষ

‘‌দিলীপ ঘোষ মুর্দাবাদ’‌, ‘‌খেলা হবে’‌, দিলীপের গাড়ি ঘিরে সপ্তমে উঠল স্লোগান

  • পরিস্থিতি সামাল র‌্যাফকে নামানো হয়। প্রাতঃভ্রমণ সেরে বার্নপুর বাসস্ট্যান্ডে দিলীপ ঘোষ চা চক্রে যোগ দিয়েছিলেন।

আবার বিক্ষোভ–স্লোগানের মুখে পড়লেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে এই ঘটনা ঘটেছে পদ্ম গড়েই। স্বাভাবিকভাবে কপালে ভাঁজ পড়েছে। বুধবার সকালে বার্নপুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে যখন ছিলেন তখন দিলীপ ঘোষের গাড়ির সামনে ওঠে ‘‌খেলা হবে’‌ স্লোগান। এমনকী ‘‌দিলীপ ঘোষ মুর্দাবাদ’‌ বলেও সোচ্চার হয়ে ওঠেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। আর তাতেই বেশ বিরক্তবোধ করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি হকচকিয়ে যান।

এই পরিস্থিতি দেখে এগিয়ে আসে বিজেপির নেতা–কর্মীরা। তাঁরা সর্বভারতীয় সহ–সভাপতিকে দেখে পালটা নরেন্দ্র মোদী জিন্দাবাদ, দিলীপ ঘোষ জিন্দাবাদ বলে স্লোগান দিতে শুরু করেন। এমন অবস্থায় সংঘর্ষ ঘটতে পারে এই আশঙ্কায় এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরিস্থিতি সামাল র‌্যাফকে নামানো হয়। প্রাতঃভ্রমণ সেরে বার্নপুর বাসস্ট্যান্ডে দিলীপ ঘোষ চা চক্রে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর গাড়ি করে বেরোতেই দিলীপ ঘোষকে ঘিরে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা খেলা হবে স্লোগান দিতে থাকেন।

আবার বিক্ষোভ–স্লোগানের মুখে পড়লেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে এই ঘটনা ঘটেছে পদ্ম গড়েই। স্বাভাবিকভাবে কপালে ভাঁজ পড়েছে। বুধবার সকালে বার্নপুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে যখন ছিলেন তখন দিলীপ ঘোষের গাড়ির সামনে ওঠে ‘‌খেলা হবে’‌ স্লোগান। এমনকী ‘‌দিলীপ ঘোষ মুর্দাবাদ’‌ বলেও সোচ্চার হয়ে ওঠেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। আর তাতেই বেশ বিরক্তবোধ করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি হকচকিয়ে যান।

এই পরিস্থিতি দেখে এগিয়ে আসে বিজেপির নেতা–কর্মীরা। তাঁরা সর্বভারতীয় সহ–সভাপতিকে দেখে পালটা নরেন্দ্র মোদী জিন্দাবাদ, দিলীপ ঘোষ জিন্দাবাদ বলে স্লোগান দিতে শুরু করেন। এমন অবস্থায় সংঘর্ষ ঘটতে পারে এই আশঙ্কায় এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরিস্থিতি সামাল র‌্যাফকে নামানো হয়। প্রাতঃভ্রমণ সেরে বার্নপুর বাসস্ট্যান্ডে দিলীপ ঘোষ চা চক্রে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর গাড়ি করে বেরোতেই দিলীপ ঘোষকে ঘিরে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা খেলা হবে স্লোগান দিতে থাকেন।|#+|

যদিও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। দিলীপ ঘোষের গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখান একদল তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী–সমর্থক। ‘খেলা হবে’ স্লোগান তোলার পাশাপাশি ‘দিলীপ ঘোষ মুর্দাবাদ’, ‘নরেন্দ্র মোদী নিপাত যাও’, ‘বিজেপি হটাও’ বলেও আওয়াজ সপ্তমে তোলেন তাঁরা। এতে দিলীপ ঘোষ প্রথমে হকচকিয়ে গেলেও পরে নিজেকে সামলে নেন।

উল্লেখ্য, আসানসোল বিজেপির গড় হিসাবে পরিচিত। এখানকার সাংসদ অবশ্য এখন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। তারপর থেকেই হাওয়া বদলাতে শুরু করে। যদিও তা মানতে নারাজ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। এবার তা সামনাসামনি পরখ করলেন দিলীপ ঘোষ। একদিন আগেই তিনি বাবুল সুপ্রিয়কে কটাক্ষ করে বলেছিলেন, সিপিআইএম নয়, প্রকৃত সর্বহারা বাবুল সুপ্রিয়। তার পরদিনই এমন বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল দিলীপ ঘোষকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও বাবুল সুপ্রিয়কে সরাসরি ‘বেইমান’ আখ্যা দেন দিলীপ ঘোষ।

বন্ধ করুন