বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মধুচক্রে ফাঁসানোর চেষ্টা কান্দির বিজেপি নেতাকে! অভিযোগ পেয়েই তদন্তে পুলিশ
ছবি সৌজন্যে পিটিআই
ছবি সৌজন্যে পিটিআই

মধুচক্রে ফাঁসানোর চেষ্টা কান্দির বিজেপি নেতাকে! অভিযোগ পেয়েই তদন্তে পুলিশ

  • মধুচক্রে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ জানিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন মুর্শিদাবাদের কান্দির বিজেপি নেতা।

মধুচক্রে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ জানিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন মুর্শিদাবাদের কান্দির বিজেপি নেতা। কান্দি থানায় মুর্শিদাবাদের কান্দি পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান গৌতম রায় অভিযোগ করেন যে প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপে তাঁকে মেসেজ করে উত্যক্ত করার চেষ্টা হয়। পরবর্তীতে তাঁকে হতে হয় প্রতারণার শিকার। হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ভাইরাল করে দেওয়া হুমকি দিয়ে সিবিআই-এর নাম করে টাকা আদায়ের চেষ্টা হয়।

গৌতবাবু অভিযোগ করেন, সোমবার তাঁর কাছে হোয়টসঅ্যাপে ভিডিয়ো কল করা হয়। যে নম্বর থেকে কলটি আসে তার প্রোফাইল পিকচারে এখজন তরুণীর মুখ ছিল। তবে সেই কল ধরেননি বলে দাবি করেন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির এই প্রার্থী। তাঁর দাবি, মঙ্গলবার ফের সেই প্রোফাইল থেকে ফোন আসে তাঁ কাছে। সেই ফোনও তিনি ধরেননি বলেই দাবি করেন গৌতমবাবু। এর পর মেসেজের মাধ্যমেই নাকি গৌতমবাবুর কাছে কুপ্রস্তাব পাঠানো হয়। প্রস্তাব উড়িয়ে প্রতিবাদ জানান বলে দাবি করেন বিজেপি নেতা।

গৌতমবাবু পুলিশকে জানান, মঙ্গলবার রাতে তাঁর কাছে অন্য একটি নম্বর থেকে ফোন আসে। তাতে সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। সেই ব্যক্তি নিজের নাম বিনোদ রাঠৌর বলে দাবি করেন। বিনোদ নামক ব্যক্তিটি নাকি বিজেপি নেতার থেকে এই বিষয়টি 'মিটমাট' করতে টাকা চান। হুমকি দেন, টাকা না পেলে মেসেজ ভাইরাল করে দেওয়া হবে। এই ঘটনার পর রাতেই কান্দি থানায় অভিযোগ জানান গৌতমবাবু। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই জাল কতদূর বিস্তৃত, তা খতিয়ে দেখছে সাইবার ক্রাইম বিভাগ।

বন্ধ করুন