বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঠেলায় না পড়লে বিড়াল গাছে ওঠে না: নাম না করে মমতাকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর
তমলুকের সভায় শুভেন্দু অধিকারী। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
তমলুকের সভায় শুভেন্দু অধিকারী। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

ঠেলায় না পড়লে বিড়াল গাছে ওঠে না: নাম না করে মমতাকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

  • শুভেন্দু বলেন, ‘প্রাথমিকে পড়ুয়াদের জামা, জুতো, ব্যাগে কাটমানি পায়। সাইকেলে তো আছেই। আর এখন পড়ুয়াদের ট্যাব দিচ্ছে। নতুন উপায়।’‌

এক সুরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ ও বাম শিবিরের প্রশংসা করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে রাজ্যের কৃষকরা কেন্দ্রের কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পের সুবিধা পেতে চলেছেন। সায় দিয়েছেন মমতাই। সেই কথা তুলে এদিন তৃণমূল সুপ্রিমোর নাম না করে এদিন তমলুকের জনসভায় শুভেন্দু বলেন, ‘‌এতদিন কৃষকদের বঞ্চিত করলেন কেন?‌ ঠেলায় না পড়লে বিড়াল গাছে ওঠে না।’‌ এর পরই তিনি বলেন, ‌নীতিতে অনেক ভুল থাকলেও কাজ করেছে বামফ্রন্ট।’‌

‌করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের ছাত্রছাত্রীদের ট্যাব দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের শাসকদলকে আক্রমণ করে শুভেন্দু বলেন, ‘প্রাথমিকে পড়ুয়াদের জামা, জুতো, ব্যাগে কাটমানি পায়। সাইকেলে তো আছেই। আর এখন পড়ুয়াদের ট্যাব দিচ্ছে। নতুন উপায়।’‌ রাজ্যে কেন্দ্রীয় প্রকল্প চালুর ব্যাপারে শুভেন্দুর কটাক্ষ, ‘‌ঠেলায় না পড়লে বিড়াল গাছে ওঠে না। এতদিনে পিএম কিষান নিধি নিয়েছেন। কেন্দ্রের সব প্রকল্পের নাম বদলে দিয়েছে। সবাই বঞ্চিত, কাউকে আওয়াজ তুলতে হবে। আমি আওয়াজ তুলেছি।’‌

এদিন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘‌তোলাবাজ ভাইপো’‌ নামে আক্রমণ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন,‌ ‘‌বিনয় মিশ্রের সঙ্গে তোমার কি সম্পর্ক? তোলাবাজ ভাইপো উত্তর দিতেই হবে।’‌ শুভেন্দুর কথায়, ‘‌তৃণমূল এখন প্রাইভেট কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে। যাঁরা ক্রীতদাস তাঁরা থাকবেন। যাঁদের আত্মসম্মান আছে তাঁরা থাকবেন না।’

বন্ধ করুন