বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > BJP Leaders: মেদিনীপুরে দিলীপ ঘোষের কর্মসূচিতে ‘‌না’‌ নেতাদের, পাল্টা মাতলেন চড়ুইভাতিতে

BJP Leaders: মেদিনীপুরে দিলীপ ঘোষের কর্মসূচিতে ‘‌না’‌ নেতাদের, পাল্টা মাতলেন চড়ুইভাতিতে

চড়ুইভাতিতে ব্যস্ত রইলেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা।

বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি তথা সাংসদ একাধিক কর্মসূচি নিয়ে মেদিনীপুরে এসেছিলেন। তাঁর কর্মসূচিতে ছিলেন না দলের দাপুটে নেতারা। বরং পাল্টা সুবর্ণারেখার তীরে ভসরাঘাটে চড়ুইভাতিতে মাতলেন তাঁরা। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে বিজেপির অন্দরমহলে। এদিন চন্দ্রকোণা রোডে ‘চায়ে পে চর্চা’য় যোগ দেন সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

দিলীপ ঘোষের যেতে রাজি হলেন না বেশ কয়েকজন বিজেপির নেতারা। কর্মসূচি এড়াতে চড়ুইভাতিতে ব্যস্ত রইলেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা। রবিবার দিন ঘটেছে এমন ঘটনা। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি তথা সাংসদ একাধিক কর্মসূচি নিয়ে মেদিনীপুরে এসেছিলেন। তাঁর কর্মসূচিতেও ছিলেন না দলের দাপুটে নেতা–কর্মীরা। বরং পাল্টা সুবর্ণারেখার তীরে ভসরাঘাটে চড়ুইভাতিতে মাতলেন তাঁরা। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে বিজেপির অন্দরমহলে।

ঠিক কী ঘটেছে মেদিনীপুরে?‌ এদিন চন্দ্রকোণা রোডে প্রাতঃভ্রমণ সেরে ‘চায়ে পে চর্চা’য় যোগ দেন মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে মেদিনীপুর সদর ব্লকের চাঁদরায় যান তিনি। তারপর মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হলে একটি আঁকার প্রতিযোগিতায় যোগ দেন। অথচ তাঁর একটি কর্মসূচিতেও ছিলেন না বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি আশীর্বাদ ভৌমিক, প্রাক্তন জেলা সভাপতি সৌমেন তিওয়ারি, জেলার সাধারণ সম্পাদক গৌরীশঙ্কর অধিকারী–সহ অন্যান্যরা। তাঁরা সবাই কেশিয়ারির সুবর্ণারেখার নদীর তীরে চড়ুইভাতিতে মেতে ওঠেন।

কেন এমন করা হয়েছে?‌ নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক জেলা বিজেপির নেতা বলেন, ‘‌দলের নেতা–কর্মীদের নিয়েই এই চড়ুইভাতির আয়োজন করা হয়েছিল। দিলীপ ঘোষের সভা এড়াতেই এই চড়ুইভাতির আয়োজন করা হয়েছিল। তাই বহু নেতা–কর্মীকে ফোন করে দিলীপবাবুর কর্মসূচিতে যেতে নিষেধ করা হয়েছিল। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে অনেকেই চড়ুইভাতিতে যোগ দিয়েছিলেন।’‌ গত কয়েকমাস ধরে দিলীপ ঘোষের সভায় তেমন লোক হচ্ছে না। দলের নেতারা পাত্তা দিচ্ছেন না মেদিনীপুরের সাংসদকে। তাই বিকল্প পথ বেছে নেওয়া হয়।

ঠিক কী বলছেন বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি?‌ এই ঘটনা নিয়ে বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি সৌমেন তেওয়ারি সংবাদমাধ্যমে অবশ্য বলেন, ‘‌চড়ুইভাতির ঘটনায় অহেতুক রাজনীতির রং লাগানো হচ্ছে। এরকম কোনও বিষয় নেই। শীতে সবাই মিলে সমবেত হয়ে একটু খাওয়াদাওয়ার আয়োজন ছিল।’‌ আর দিলীপ ঘোষ সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‌এদিন রাজনৈতিক কর্মসূচি তেমন ছিল না। তবে আমি জেলা সভাপতিকে আমন্ত্রণ করেছিলাম।’‌ আর এই ঘটনাতে খোঁচা দিয়ে জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কো–অর্ডিনেটর অজিত মাইতি বলেন, ‘‌এতদিন দিলীপ ঘোষকে এড়িয়ে চলত তৃণমূল। কিন্তু এখন তাঁকে তাঁর দলের নেতারাই এড়িয়ে চলছেন। কারণ বিজেপির লোকেরাও জানেন দিলীপ ঘোষ অন্যকে সর্বদা অসম্মান করে কথা বলেন। উনি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত। তাই তাঁকে দলের লোকেরা এড়িয়ে চলছে।’‌

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

দাম ৩ কোটি! জন্মদিনে উর্বশীকে ২৪ ক্যারেট সোনায় মোড়া কেক উপহার দিলেন এই বিশেষ মানুষ... EPL 2023 (Wolverhampton Wanderers vs Sheffield United) Live Updates: ছোটবেলাতেই খাওয়ান এই খাবার! কমতে পারে অকালে পাকা চুল গজানোর সম্ভাবনা মালদায় দেহ উদ্ধার নিয়ে তৎপর জাতীয় মহিলা কমিশন, ডিজির কাছে রিপোর্ট তলব ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষিত হয়নি, ভুয়ো খবর খণ্ডন করল নির্বাচন কমিশন পায়ের পেশিতে চোট, বিশ্বকাপের আগে শেষ T20I-তে মাঠের বাইরে ডেভিড ওয়ার্নার ৩৩টি টেস্ট কম খেলে সব থেকে বেশি ৫ উইকেটে কুম্বলের সর্বকালীন রেকর্ড ছুঁলেন অশ্বিন ৬ এর বদলে ৮ মার্চ নারী দিবসে বারাসতে মোদীর সভা,থাকবেন সন্দেশখালির মহিলারা দুঃস্বপ্নে রেফারিরা আসছে, তাদের বসকে ছাঁটাই করা হোক, বিস্ফোরণ ইস্টবেঙ্গল কোচের রাজ্যের কলেজে অভিন্ন পোর্টালের মাধ্যমে ভরতি চালু হচ্ছে চলতি বছরেই

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.