গ্রেফতারির পর বিজেপি মণ্ডল সভাপতি আশিস দাস
গ্রেফতারির পর বিজেপি মণ্ডল সভাপতি আশিস দাস

বর্ধমানে অস্ত্রসহ গ্রেফতার হুগলির বিজেপি মণ্ডল সভাপতি, শুরু রাজনৈতিক তরজা

মঙ্গলবার রাতে নাকা তল্লাশির সময় সন্দেহজনক ওই গাড়ি থেকে একটি পাইপগান, একটি ওয়ান শটার, ৩ রাউন্ড গুলি, ৪টে বোমা ও একটি ধনুক ও বেশ কিছু তির উদ্ধার হয়েছে।

আগ্নেয়াস্ত্রসহ ধরা পড়লেন বিজেপির আরেক মণ্ডল সভাপতি। মঙ্গলবার রাতে তাঁকে পূর্ব বর্ধমানের মশাগোড়িয়া থেকে গ্রেফতার করে জামালপুর থানার পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে পাইপগান, ওয়ান শটার-সহ আরও প্রচুর অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। যদিও বিজেপির দাবি, পুরোটাই চক্রান্ত। বিজেপির উত্থানে ভয় পেয়ে পুলিশকে দিয়ে এসব করাচ্ছে তৃণমূল।

পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে নাকা তল্লাশির সময় সন্দেহজনক ওই গাড়ি থেকে একটি পাইপগান, একটি ওয়ান শটার, ৩ রাউন্ড গুলি, ৪টে বোমা ও একটি ধনুক ও বেশ কিছু তির উদ্ধার হয়েছে। গাড়িতে ছিলেন মোট ৬ জন। এর মধ্যে ২ জন পালায়। বাকিদের গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের মধ্যে রয়েছেন হুগলির ধনিয়াকালির ২৯বি মণ্ডল সভাপতি আশিস দাস। এলাকায় তার ব্যাপক দাপট বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

নভেম্বরে হুগলিতেই অস্ত্রসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন আরেক বিজেপি মণ্ডল সভাপতি। ভাস্কর শীল নামে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছিল ওয়ান শটার ও কার্তুজ।

বিজেপির দাবি, বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে বিজেপিকে বাগে আনতে রাস্তায় গাড়ি আটকে আর্ম কেস দিচ্ছে পুলিশ। তৃণমূল নেতৃত্বের নির্দেশেই পুলিশ একাজ করছে বলে দাবি তাদের। পালটা তৃণমূলের দাবি, যেন তেন প্রকারে ভোটে জিততে এলাকায় সন্ত্রাস তৈরি করতে চাইছে বিজেপি। তাই নেতাকর্মীদের অস্ত্র দিয়ে ময়দানে নামাচ্ছে তারা।



বন্ধ করুন