বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিজেপিতে সাংগঠনিক বিদ্রোহ চরমে, হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন অশোক দিন্দা
ময়না : অশোক দিন্দা। (ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
ময়না : অশোক দিন্দা। (ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

বিজেপিতে সাংগঠনিক বিদ্রোহ চরমে, হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন অশোক দিন্দা

  • মুরলিধর সেন লেন সূত্রে খবর, এই দ্বন্দ্ব মারাত্মক আকার নিচ্ছে। সাংসদ থেকে বিধায়ক একে অপরকে সহ্য করতে পারছেন না। নীচুতলার কর্মীদের কাছে যে বার্তা যাচ্ছে তাতে সংগঠন ভেঙে চুরমার হয়ে যাচ্ছে। দিলীপ ঘোষের সাম্প্রতিক সুকান্ত মজুমদারকে নিয়ে মন্তব্য সেই সাক্ষ্য বহন করছে।

‘‌বিদ্রোহ আজ, বিদ্রোহ চারিদিকে’‌, এই গানের লাইনই শোনা যাচ্ছে বঙ্গ–বিজেপির অন্দরমহলে। তাই আবার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়ার ঘটনা ঘটল। বিজেপিতে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে লেফট হওয়ার ট্রেন্ড অব্যাহত রয়েছে। একুশের নির্বাচনের পর থেকে এই ট্রেন্ডের লাইন লেগে গিয়েছে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা বিজেপি বিধায়ক অশোক দিন্দা।

ঠিক কী ঘটেছে বিজেপিতে?‌ বিজেপি সূত্রে খবর, রাজ্য পার্টির সাংগঠনিক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে লেফট হয়েছেন অশোক দিন্দা। তবে বিধায়কদের গ্রুপে তিনি আছেন। হিরণ চট্টোপাধ্যায়, শান্তনু ঠাকুর থেকে শুরু করে একাধিক নেতা–নেত্রী হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়েছিলেন। এবার সেই ট্রেন্ড বজায় রাখলেন অশোক দিন্দা। তবে কেন তিনি গ্রুপ ছাড়লেন?‌ তা স্পষ্ট করেননি।

তাহলে কী বিদ্রোহের সুর অব্যাহত?‌ সূত্রের খবর, এবার বঙ্গ–বিজেপিতে বড় বড় ঘটনা ঘটতে চলেছে। যা ঠেকাবার কেউ নেই। এমনকী একটি রিপোর্ট জমা পড়ছে জেপি নড্ডার কাছে, যেখানে বঙ্গ–বিজেপির শীর্ষ নেতাদের নামে ব্যর্থতার ফিরিস্তি রয়েছে। তার জেরে সুকান্ত–শুভেন্দু পদ খোয়াতে পারেন। বিজেপির অন্দরে বিদ্রোহের সুর চরমে উঠেছে। এবার তাতে যেন গলা মেলালেন অশোক দিন্দা। সাংগঠনিক কাজে অসন্তোষের জেরেই লেফট হয়ে গেলেন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে।

আদি–নব্যের দ্বন্দ্ব কী অব্যাহত?‌ মুরলিধর সেন লেন সূত্রে খবর, এই দ্বন্দ্ব মারাত্মক আকার নিচ্ছে। সাংসদ থেকে বিধায়ক একে অপরকে সহ্য করতে পারছেন না। নীচুতলার কর্মীদের কাছে যে বার্তা যাচ্ছে তাতে সংগঠন ভেঙে চুরমার হয়ে যাচ্ছে। দিলীপ ঘোষের সাম্প্রতিক সুকান্ত মজুমদারকে নিয়ে মন্তব্য সেই সাক্ষ্য বহন করছে।

বন্ধ করুন