ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

মমতার নির্দেশে পুলিশ আমায় খুন করতে চেয়েছিল-রাজ্যপালকে চিঠিতে অভিযোগ অর্জুনের

যুগ্ম পুলিশ কমিশনারের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিজেপি সাংসদের 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে তাঁকে খুন করতে চেয়েছিল পুলিশ, এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। যুগ্ম পুলিশ কমিশনার অজয় ঠাকুরের বিরুদ্ধে তিনি চিঠি লিখেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কাছে। 

ব্যারাকপুর সাংসদের অভিযুক্ত যে ১৪-মে মমতার নির্দেশে অজয় ঠাকুর তিনি ও তাঁর পরিবারকে খুন করতে গিয়েছিলেন ক্রস ফায়ারিংয়ের অছিলায়। ঘটনাক্রমের বিবরণ দিয়ে অর্জুন বলেন যে সন্ধ্যেবেলায় ৭.৩০ নাগাদ অজয় ঠাকুর তাঁর অফিসের সামনে এসে ঘোরাঘুরি করছিলেন ৩৫জন সতীর্থের সঙ্গে। তখনই তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অফিসার জিজ্ঞেস করেন পুলিশ কর্তাকে যে আপনাদের কী চাই। তখন ঠাকুর বলেন যে তিনি স্থানীয় দুই বাসিন্দাকে নোটিস দিতে এসেছেন। অর্জুনের অভিযোগ যে এটা বললেও ঠাকুরের কাছে কোনও নোটিস ছিল না। তিনি একজন সাব-ইন্পক্টেরকে তখন নোটিসটি ওখানেই লিখতে বলেন। 

অর্জুন সিংয়ের দাবি তাঁর কাছে বিশ্বস্তসূত্রে খবর আছে যে অজয় ঠাকুর ওখানে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে ঝগড়া শুরু করার তালে ছিল যাতে কোনও অজুহাতে তাঁকে পরিবার সহ শেষ করে দেওয়া যায়।

 চিঠিতে অর্জুন লিখেছেন, মানুষের জন্যেই তিনি মমতার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন, কিন্তু নিজের রাজনৈতিক কার্যসিদ্ধির জন্য তাঁকে হত্যা করার চক্রান্ত করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। একই সঙ্গে ৭৫টি ফেক কেসে তাঁর নাম জড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন সাংসদ। অজয় ঠাকুর সহ এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিতে রাজ্যপালকে আর্জি জানিয়েছেন অর্জুন। 

 

বন্ধ করুন