বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌আমি তা জানতে পেরে খুব খুশি হয়েছি’‌, মুখ্যমন্ত্রীর কোন কাজে খুশি অর্জুন?‌
অর্জুন সিং
অর্জুন সিং

‘‌আমি তা জানতে পেরে খুব খুশি হয়েছি’‌, মুখ্যমন্ত্রীর কোন কাজে খুশি অর্জুন?‌

  • পাটের দাম নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক যদি ফলপ্রসূ না হয় তাহলে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। কেন্দ্রীয় সরকারকে কার্যত আলটিমেটাম দিয়েছেন তিনি। তাহলে কী তিনি পুরনো দলে ফিরবেন?‌

ফোন পেয়ে নয়াদিল্লিতে ছুটে গিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। কিন্তু পরেরদিন সকালেই হুঙ্কার ছেড়েছিলেন, ললিপপের রাজনীতি আমি করি না। এমনকী পাট ও পাটচাষীদের স্বার্থে তিনি চিঠি লিখেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এবার আবার প্রশংসা করলেন মুখ্যমন্ত্রীর। হ্যাঁ, তিনি ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং।

কেমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ?‌ পাটের দাম নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক যদি ফলপ্রসূ না হয় তাহলে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। কেন্দ্রীয় সরকারকে কার্যত আলটিমেটাম দিয়েছেন তিনি। তাহলে কী তিনি পুরনো দলে ফিরবেন?‌ এই বিষয়ে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং বলেন, ‘‌আগামী দিনে কী হবে তা আমি এখনই বলতে পারব না। ৯ তারিখ যদি বৈঠক ফলপ্রসূ না হয় তাহলে আমাকে আন্দোলন থেকে কেউ রুখতে পারবে না।’‌

বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কী প্রশংসা করেছেন বিজেপি সাংসদ?‌ মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা শোনা গিয়েছে ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদের গলায়! তিনি বলেন, ‘‌এই বিষয়টি নিয়ে রাজ্য থেকে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী চিঠি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীকে। আমি তা জানতে পেরে খুব খুশি হয়েছি। এর থেকে বড় কথা আর কী বলা যেতে পারে?’‌ পাট নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অর্জুনের হুঙ্কারকে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, অর্জুন সিংকে নিয়ে যখন রাজনৈতিক জল্পনা তুঙ্গে তখন তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক মদন মিত্রের মন্তব্য আরও ইঙ্গিতবহ হয়ে উঠেছে। কামারহাটির বিধায়ক বলেন, ‘‌অর্জুন দেখতে এখন সুন্দর হচ্ছে। ও ধীরে ধীরে সুন্দর বাগানের দিকে এগোচ্ছে! ও এতটা সুন্দর দেখতে আগে দেখিনি।’‌ দলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘‌ভুল করেছে সেটা বুঝতে পারছে। বাংলার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া কেউ ভাবে না। সেটা বুঝতে পারছে।’‌

বন্ধ করুন