বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌রামের নামে মিছিলে হাতে অস্ত্র নয় তো কি লাড্ডু থাকবে?’ বিতর্কে দিলীপ
বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

‘‌রামের নামে মিছিলে হাতে অস্ত্র নয় তো কি লাড্ডু থাকবে?’ বিতর্কে দিলীপ

  • এই মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্য–রাজনীতিতে।

আবার বিতর্কিত মন্তব্য করে সমস্যা বাড়ালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এমনকী অস্ত্র রাখার প্ররোচনা দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। এবার রাজ্যে রামনবমী পালনের ডাক দিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। রবিবার রামনবমীতে বিজেপির ছোট–বড় সব নেতারাই নিজের এলাকায় মিছিল এবং সভা করবেন। দলের বিধায়ক–সাংসদদের এই কর্মসূচিতে অংশ নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। খড়গপুরে মিছিল করবেন দিলীপ ঘোষ। আর এই মিছিল নিয়েই তিনি জানান, সেখানের মিছিলে অস্ত্রও থাকবে। রামের নামে মিছিলে হাতে অস্ত্র থাকবে না তো কি লাড্ডু থাকবে?

কোন কোন জায়গায় হবে মিছিল?‌ বিশ্ব হিন্দু পরিষদ সূত্রে খবর, মেদিনীপুর, খড়্গপুর, সিউড়ি–সহ কয়েকটি জায়গায় বড় মাপের শোভাযাত্রা হবে। মিছিলে অস্ত্রশস্ত্র নিয়েও সংগঠনের কর্মী, সমর্থকরা যোগ দেবেন। যদিও সংগঠনের মুখপাত্র পারিজাত চক্রবর্তী বলেন, ‘আমরা কাউকে অস্ত্র নিয়ে মিছিলে আসতে বলব না।’‌

কিন্তু দিলীপ ঘোষ কী বলছেন?‌ রামনবমীর মিছিল নিয়ে মেদিনীপুরের সাংসদ সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‌প্রতি বছরই খড়্গপুরে বড় করে রামনবমী পালন হয়। এবারও হবে। করোনাভাইরাস নেই, তাই এবার একটু বেশিই আগ্রহ মানুষের। শোভাযাত্রার শেষে সভাও হবে। হিন্দুরা শক্তির উপাসক। সব দেবদেবীর হাতেই অস্ত্র থাকে। ভগবান রামও যোদ্ধা ছিলেন। তাই রামের নামে মিছিলে হাতে অস্ত্র নয় তো কি লাড্ডু থাকবে?’ এটা সরাসরি অস্ত্র রাখার প্ররোচনা দেওয়া বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এই মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্য–রাজনীতিতে। বিষয়টি নিয়ে বিজেপির রাজ্য মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘রামনবমীতে বিজেপির কোনও কর্মসূচি নেই। এটা হিন্দু জনতার ভাবাবেগের বিষয়। তাতে যে কেউ যোগ দিতেই পারেন। আর রামের মিছিল রামের দেশে হবে না তো কি বাবরের দেশে হবে?’ এখানে অস্ত্র নিয়ে তিনি কোনও মন্তব্য করেননি।

বন্ধ করুন