বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌তৃণমূল নেতাদের পিছনে পেট্রল দিন’‌, দিলীপের বিতর্কিত মন্তব্যে আলোড়ন বাঁকুড়ায়
দিলীপ ঘোষ।

‘‌তৃণমূল নেতাদের পিছনে পেট্রল দিন’‌, দিলীপের বিতর্কিত মন্তব্যে আলোড়ন বাঁকুড়ায়

  • কিন্তু তারপরও থেমে থাকছেন না বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি। সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেস নেতা এবং সরকারের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করে দিলীপ বলেন, ‘তোমাদের কোনও যোগ্যতা নেই। আলু, ঢ্যাঁড়স, ঝিঙের দাম কমাতে পারছো না। আর পেট্রল তো অনেক দূর।’‌

তাঁকে নিয়ে রাজ্য–রাজনীতিতে বিতর্ক কম নেই। এবার সব বিতর্কের লাগাম ছাড়িয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আজ, বুধবার ‘ভয় মুক্ত বাংলা ও হিংসা মুক্ত রাজনীতি’র দাবিতে পদযাত্রা করছিলেন দিলীপ ঘোষ। বাঁকুড়ায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে কর্মীদের বিতর্কিত নিদান দিলেন তিনি। সরাসরি তৃণমূল নেতাদের ‘পিছনে পেট্রল’ দেওয়ার নিদান দিলেন মেদিনীপুরের সাংসদ।

ঠিক কী বলেছেন দিলীপ ঘোষ?‌ আজ, বুধবার বাঁকুড়ায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেদিনীপুরের সাংসদ বলেন, ‘‌আগে আলুর দাম ছিল কিলো প্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকা। এখন সেই আলুর দাম দাঁড়িয়েছে কিলো প্রতি ৩৫ টাকা থেকে ৪০ টাকা। আলু তো আর রাশিয়া বা ইউক্রেন থেকে আসে না। আলুর দাম যেখানে একশো শতাংশ বেড়েছে, সেখানে ৯০ টাকার পেট্রল মাত্র ২০ থেকে ২৫ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১১৫ টাকা। পেট্রল তো কেউ খায় না। আলু সবাই খায়। আমরা ছোটবেলায় বদমায়েশি করে কুকুরের পিছনে পেট্রল দিয়ে দিতাম। এখন তৃণমূল নেতাদের ধরে তাদের পিছনে একটু পেট্রল দিয়ে দিন। কেমন দৌড় দেবে দেখুন। কেমন মজা?’

বিজেপির এই শীর্ষ নেতার মন্তব্য নিয়ে এখন রাজ্য–রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। তাঁর মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলার চেয়ারম্যান শ্যামল সাঁতরা। তিনি বলেন, ‘‌বিজেপি নেতাদের এমন কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের জন্য বাংলার মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। একের পর এক ভোটের ফলাফল সেই সাক্ষ্য বহন করছে। তাই দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে অবিলম্বে কঠোর প্রশাসনিক পদক্ষেপ করা উচিত।’‌

কিন্তু তারপরও থেমে থাকছেন না বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি। সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেস নেতা এবং সরকারের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করে দিলীপ বলেন, ‘তোমাদের কোনও যোগ্যতা নেই। আলু, ঢ্যাঁড়স, ঝিঙের দাম কমাতে পারছো না। আর পেট্রল তো অনেক দূর।’‌

বন্ধ করুন