বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চার পুরসভার নির্বাচনেও থাকছে না কোনও মুখ, বিজেপির অন্দরে জোর চর্চা
বিজেপি (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)
বিজেপি (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)

চার পুরসভার নির্বাচনেও থাকছে না কোনও মুখ, বিজেপির অন্দরে জোর চর্চা

  • এক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হস্তক্ষেপ নিয়ে দলের অন্দরে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

এবার চারটি পুরসভা নির্বাচন আসন্ন। কিন্তু অভাব রয়েছে যোগ্য নেতৃত্বের। যার ফলে জানুয়ারি মাসে রাজ্যের চার পুরসভার নির্বাচনে কাউকেই মুখ করতে পারছে না বঙ্গ–বিজেপি বলে সূত্রের খবর। কারণ সেই সংগঠনের দৈন্যদশা। তাই রাজ্যের আসন্ন চার পুরসভার নির্বাচনে কাউকে মুখ না করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে তাঁরা। অজুহাত হিসাবে দলের নীতি–আদর্শের কথাই তুলে ধরা হবে।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনেও এই কৌশলই গ্রহণ করেছিল বঙ্গ–বিজেপি। কলকাতা পুরসভা নির্বাচনেও তা দেখা গিয়েছিল। এই বিষয়ে বিজেপি সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপির অন্যতম সহ–সভাপতি জগন্নাথ সরকার বলেন, ‘বিজেপি একটি নীতি–আদর্শের দল। এখানে কে মুখ হলেন, তার উপর বিশেষ কিছু নির্ভর করে না। তবে জানুয়ারি মাসে রাজ্যের চারটি পুরসভার নির্বাচনে বিজেপি আদৌ কাউকে মুখ করবে কি না, সেই ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সিদ্ধান্ত নেবেন।’

এক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হস্তক্ষেপ নিয়ে দলের অন্দরে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। কারণ একুশের নির্বাচনেও একই স্ট্র‌্যাটেজি ফেল করেছিল। জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে রাজ্যের বিধাননগর, চন্দননগর, আসানসোল এবং শিলিগুড়ি পুরসভার নির্বাচন রয়েছে। কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে বঙ্গ–বিজেপির ভরাডুবি হয়েছে। তবে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি উল্লিখিত চার পুরসভার নির্বাচনেও হবে কি না তা নিয়ে যথেষ্ট উদ্বেগের মধ্যেই রয়েছে দলীয় নেতৃত্ব।

দলীয় সূত্রের খবর, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের একটি বড় অংশ মনে করছে, কোনও মুখ দিতে না পারার ঘটনা প্রভাব ফেলছে নির্বাচনী ফলাফলে। সংগঠনের দুর্বলতার কথা কলকাতায় বৈঠকে এসে স্বীকার করেছেন খোদ কেন্দ্রীয় নেতা বিএল সন্তোষ। সম্প্রতি রাজ্য কমিটি তৈরি হওয়া এবং ৩০টি সাংগঠনিক জেলা কমিটি ভেঙে দিয়ে সভাপতিদের অপসারণের জেরে একের পর এক নেতা–বিধায়কের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে দিয়েছেন। এই বিষয়টিও প্রভাব ফেলতে পারে ভোটবাক্সে বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন