বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফোকাসে ১৬ অগস্ট, তৃণমূলের 'খেলা'র পালটা 'বাংলা বাঁচাতে' রাস্তায় নামছে BJP
দিলীপ ঘোষ এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য টুইটার এবং এএনআই)
দিলীপ ঘোষ এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য টুইটার এবং এএনআই)

ফোকাসে ১৬ অগস্ট, তৃণমূলের 'খেলা'র পালটা 'বাংলা বাঁচাতে' রাস্তায় নামছে BJP

  • একুশের মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন যে আগামী ১৬ অগস্ট বাংলা জুড়ে পালিত হবে 'খেলা হবে' দিবস।

একুশের মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন যে আগামী ১৬ অগস্ট বাংলা জুড়ে পালিত হবে 'খেলা হবে' দিবস। আর সেই ঘোষণা পর থেকেই এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে এসেছে বিজেপি। এবার এই দিবসের পালটা ‘বাংলা বাঁচাও সপ্তাহ’ পালন করার ঘোষণা করল গেরুয়া শিবির। রবিবার বিজেপির যুব সংগঠনের বৈঠকে এই কর্মসূচির ঘোষণা করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

দিলীপ ঘোষ এদিন জানান যে ৯ অগস্ট থেকে ১৬ অগস্ট রাজ্যজুড়ে বিজেপি বাংলা বাঁচাও সপ্তাহ পালন করবে। দিলীপ ঘোষ বলেন, 'এই রাজ্যে কোনও খেলার প্রয়োজন নেই। এখানে চাই কর্মসংস্থান। সেই কর্মসংস্থানের দাবিতেই এবার রাস্তায় নামতে চলেছে বাংলার বিজেপি।'

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের স্লোগান ছিল ‘খেলা হবে’। সেই স্লোগান নির্বাচনী প্রচারের সময় রাজ্যের মানুষের মুখেমুখে ফিরেছে এই স্লোগান। সেই স্লোগানকেই জাতীয় স্তরে পৌঁছে দিতে চাইছেন মমতা। মমতা ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে বলেছেন, 'খেলা এখনই থামবে না। বিজেপিকে যতদিন বিতাড়িত না করি, ততদিন রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে।' পাশাপাশি তিনি ঘোষণা করেন, ১৬ অগস্ট খেলা দিবস পালন করা হবে।

সেই ঘোষণার বিরোধিতায় সরব হয় বিজেপি। প্রশ্ন তোলা হয়, কেন ১৬ অগস্টকেই বেছে নেওয়া হল? খেলা হবে দিবসকে কলকাতা দাঙ্গা (গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস) বা মুসলিম লিগের ডিরেক্ট অ্যাকশন ডে-এর সঙ্গে তুলনা টানা হয় গেরুয়া শিবিরের তরফে। এই বিষয়ে দিলীপবাবু এদিন বলেন, 'গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস শুরু হয়েছিল ১৬ অগস্ট। আমরা নতুন করে এই প্রজন্মের যুব সমাজের কাছে এই ইতিহাস তুলে ধরব। এখন যা পরিস্থিতি তাতে আমরা সেই ভয়াবহ অতীতেই যেন ফিরে যাচ্ছি। সেই ক্ষত ভরা ইতিহাস মনে করানো হবে ১৬ অগস্ট।'

বন্ধ করুন