বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুভেন্দু অধিকারীর সভার আগেই ভাঙন, বিজেপি ছেড়ে ৩০০ কর্মী তৃণমূলে যোগ উলুবেড়িয়ায়
বিজেপির একাধিক নেতা–সহ প্রায় ৩০০ জন বিজেপি কর্মী তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন।

শুভেন্দু অধিকারীর সভার আগেই ভাঙন, বিজেপি ছেড়ে ৩০০ কর্মী তৃণমূলে যোগ উলুবেড়িয়ায়

  • এদিন শরৎ ও ওড়ফুলি অঞ্চলের একাধিক বিজেপি নেতা ছাড়াও বুথ স্তরের বিজেপি নেতা এবং কর্মীরা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। বিজেপি এখানে ২১ জুলাই পাল্টা জনসভা করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই বিজেপি ছেড়ে নেতা–কর্মীরা তৃণমূল কংগ্রেসে চলে এলেন।

হাতে আর দু’‌দিন। তারপরই তৃণমূল কংগ্রেসের হাইভোল্টেজ শহিদ সমাবেশ। তার জন্য প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে। ওই দিনই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে উলুবেড়িয়ায় বিজেপির জনসভা করার কথা রয়েছে। আর তার আগেই হাওড়া গ্রামীণ জেলা বিজেপিতে ভাঙন ধরিয়ে দিল তৃণমূল কংগ্রেস। এখানের নেতা–কর্মীরা যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে।

ঠিক কী ঘটেছে উলুবেরিয়ায়?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার সন্ধ্যায় বাগনান বিধানসভার দেউলটিতে একুশে জুলাইয়ে প্রস্তুতি সভা করা হয়েছিল। সেই অনুষ্ঠানে বিজেপির একাধিক নেতা–সহ প্রায় ৩০০ জন বিজেপি কর্মী তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। এই কর্মীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন হাওড়া গ্রামীণ জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা বাগনানের বিধায়ক অরণাভ সেন।

ঠিক কী বলছে তৃণমূল কংগ্রেস?‌ তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, এদিন শরৎ ও ওড়ফুলি অঞ্চলের একাধিক বিজেপি নেতা ছাড়াও বুথ স্তরের বিজেপি নেতা এবং কর্মীরা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। বিজেপি এখানে ২১ জুলাই পাল্টা জনসভা করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই বিজেপি ছেড়ে নেতা–কর্মীরা তৃণমূল কংগ্রেসে চলে এলেন। ফলে সেই সভা ফ্লপ হতে চলেছে।

ঠিক কী বলছেন বিধায়ক?‌ এই যোগদানের বিষয়ে বাগনানের বিধায়ক অরুণাভ সেন বলেন, ‘যাঁরা ভুল বুঝে ‌বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁরা ভুল বুঝতে পেরে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে এসেছেন। বিরোধী দলনেতা একজন জোকার। ওঁর সর্ম্পকে যত কম কথা বলা যায় তত মঙ্গল। উলুবেড়িয়াতে বিজেপি দলটাই নেই, সেখানে জনসভা করে কী হবে।’‌

বন্ধ করুন